পাবনায় বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

পাবনা সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী আটঘরিয়া উপজেলার হয়দারপুর গ্রামে বিএনপি নেতা ও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মির্জা মকবুল হোসেন ওরফে দুলাল মাস্টারকে (৫২) প্রতিপক্ষরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। ঘটনার সময় একই গ্রামের জদু সরদারের ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য আরজান সরদার (৬০) ও এসকেন শেখের ছেলে আহাম্মদ আলী (৩০) আহত হন। তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রোববার বিকেল ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মির্জা মকবুল হোসেন ওরফে দুলাল মাস্টার সদর উপজেলার গয়েশপুর ইউনিয়নের পয়দা গ্রামের মৃত মির্জা আমজাদ হোসেনের ছেলে। তিনি পয়দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষক এবং জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।

স্থানীয় সুত্র ও আহতরা জানান, ঘটনার সময় নিজের জমিতে ক্যানেল কাটছিলেন দুলাল মাস্টার। এ সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন তার মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এ সময় হামলাকারীদের প্রতিহত করতে গিয়ে মারপিটে আহত হন আরো দু’জন। তাদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুলাল মাস্টারকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত দু’জনকে হাসপাতাল ভর্তি করা হয়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হাসান জানান, ঘটনাস্থল আটঘরিয়া থানা এলাকায়। সেখানের পুলিশ ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন বলে তিনি জানান।

আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, সদর থানার কাছ থেকে সংবাদ পেয়ে ফোর্স পাঠানো হয়েছে। ফিরে আসলে বিস্তারিত বলা যাবে।

You Might Also Like