পাক-ভারত ক্রিকেট সিরিজ হবে শ্রীলঙ্কায়

শেষ পর্যন্ত বহুল প্রত্যাশিত পাক-ভারত দ্বিপক্ষীয় ক্রিকেট সিরিজ আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে। ভারত ও পাকিস্তান সরকার এ সিরিজ অনুষ্ঠানের বিষয়টি অনুমোদন করেছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। দৈনিকটি জানিয়েছে, এর আগে দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ড এই সিরিজ আয়োজন নিয়ে গড়িমসি করলেও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ এ ব্যাপারে চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছেন।

আইসিসি’র এফটিপি (ভবিষ্যত সফর সূচি) অনুযায়ী ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ ক্রিকেট সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। সূচি অনুযায়ী স্বাগতিক দেশ হিসেবে পাকিস্তানের এ সিরিজের আয়োজন করার কথা ছিল যাতে বলা হয়েছিল- দুই দেশ দু’টি টেস্ট, পাঁচটি ওডিআই ও দু’টি টি২০ ম্যাচ খেলবে।

এ সিরিজ আয়োজনের ব্যাপারে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড পিসিবি’র পক্ষ থেকে আগ্রহ প্রকাশ করা হলেও ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠীগুলোর হুমকির কারণে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই এ ব্যাপারে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছিল। বিশেষ করে সম্প্রতি ভারতের মুম্বাইয়ে এ ব্যাপারে পিসিবি ও বিসিসিআই কর্মকর্তাদের মধ্যে আলোচনার আগে শিব সেনা বিসিসিআই’র সদর দপ্তরে হামলা চালায়। ওই হামলার ফলে দুই বোর্ডের কর্মকর্তাদের মধ্যে আলোচনা ভেস্তে যায় এবং দ্বিপক্ষীয় ক্রিকেট সিরিজেরও কবর রচিত হওয়ার অবস্থা তৈরি হয়।

এদিকে গত ছয় বছর ধরে স্বাগতিক দেশ পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত দ্বিপক্ষীয় প্রায় সব সিরিজ (জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে একটি সিরিজ ছাড়া) সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু ভারতের পক্ষ থেকে এবার আরব আমিরাতে খেলার ব্যাপারেও আপত্তি জানানো হয়। ফলে সিরিজটি বাংলাদেশ বা শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত হবে বলে গণমাধ্যমে গুঞ্জন শোনা যায়।

শেষ পর্যন্ত পাক-ভারত ক্রিকেট সিরিজটি শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত হবে জানিয়েছে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। এ ছাড়া, ভারত এ সিরিজ খেলতে রাজি হওয়ায় আগামী বছর ভারতে অনুষ্ঠেয় টি২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেটেও অংশ নিতে রাজি হয়েছে পাকিস্তান। আজ (মঙ্গলবার) আরো পরে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের ইসলামাবাদ সফরের সময় এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হবে বলে জানিয়েছে দৈনিকটি।

You Might Also Like