যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক সহিংসতা বিশ্বে অতুলনীয়: ওবামা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক সহিংসতা বিশ্বে অতুলনীয় এবং এটা বিরল না হয়ে রীতিতে পরিণত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ক্যালিফোর্নিয়ায় বন্দুকধারীর গুলিতে ১৪ জনের মৃত্যুর পর ওবামা সিবিএস নিউজকে একথা বলেন।

‘আমাদের দেশে এখন গণ-গোলাগুলির (মাস শুটিং) ঘটনার ধরণ দেখা যাচ্ছে যার তুলনা বিশ্বের কোথাও নেই,’ বলেন ওবামা।

তিনি তার দেশে বন্দুক হামলা রোধ করতে আবারো বন্দুক আইন কঠোরতর জন্য আহ্বান জানান এবং বলেন, যারা আগ্নেয়াস্ত্র কিনতে চায় তাদের অতীত পর্যালোচনা না করার মত মৌলিক পদক্ষেপের ঘাটতি রয়েছে।

‘এসব (হামলা) যেন স্বাভাবিক না হয়ে বিরল ঘটনায় পরিণত হয় সেজন্য আমাদের দ্বিদলীয় ভিত্তিতে এবং সরকারের প্রতিটি স্থির হতে ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত…কারণ অন্যান্য দেশে এটা একইমাত্রায় ঘটে না,’ বলেন ওবামা।

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক সহিংসতা পর্যবেক্ষণকারী একটি ওয়েবসাইটের তথ্য অনুসারে চলতি বছর প্রতিদিনই যুক্তরাষ্ট্রে গড়ে একটির বেশি গণ-গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে দৈনিক চারজনের বেশি লোক হতাহত হয়েছেন।

২০১৫ সালে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের হামলায় ৪৬২ জন নিহত এবং ১৩১৪ জন আহত হয়েছেন।

গত আগস্টে ওয়াশিংটন ডিসিতে আমেরিকান সোসিওলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সম্মেলনে এক প্রতিবেদনে আলাবামা ইউনিভার্সিটির ক্রিমিনাল জাস্টিস বিভাগের অধ্যাপক এবং ‘দা মিথ অব মার্টারডম: হোয়াট রিয়েলি ডিরাইভস সুইসাইড বোম্বার্স, র্যা ম্পেজ শ্যুটার্স অ্যান্ড আদার সেলফ-ডেসক্ট্রাকটিভ কিলার্স’ এর লেখক অ্যাডাম ল্যাঙ্কফোর্ড বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ৫ ভাগ বাস করলেও সারাবিশ্বে যত গণ-গোলাগুলির ঘটনা ঘটে তার ৩১ ভাগই ঘটে এখানে।

২০০৭ সালে সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক ক্ষুদ্র অস্ত্র জরিপ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বেসামরিক লোকদের মালিকানায় বন্দুক থাকার দিক থেকে ১৭৮টি দেশের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষে।

দেশটিতে প্রতি ১০০ জনের মধ্যে ৮৮.৮ ভাগ লোকের নিজের অস্ত্র রয়েছে।

তালিকায় এর পরেই রয়েছে ইয়েমেনে, যেখানে ৫৪.৮ ভাগ লোক অস্ত্রের মালিক।

সূত্র: আলজাজিরা

You Might Also Like