দেশই আমাদের সবকিছু দিয়েছে : শাহরুখ

বলিপাড়ার দুই খানের দ্বৈরথ আবার জমে উঠেছে৷ অসহিষ্ণুতা নিয়ে আরও একবার মুখ খুললেন শাহরুখ খান৷ তবে এবারে তাঁর কথায় থাকল আমির খানকে জবাব দেওয়ার রেশ৷ কিছুদিন আগেই আমির জানিয়েছিলেন দেশের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে তাঁর স্ত্রী এতটাই আতঙ্কে আছেন যে, বাচ্চার ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে দেশ ছাড়তে হবে কি না সে শঙ্কাও প্রকাশ করেছেন৷ সেই মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই শাহরুখ যেন জানালেন, দেশ নিয়ে তার কোনও অভিযোগ নেই৷ বলিউড স্টারদের যা কিছু বিত্ত-বৈভব-সম্মান তা এই দেশই দিয়েছে৷

আমিরের এ মন্তব্যের নানা ব্যাখ্যা ইতোমধ্যেই হয়েছিল৷ গায়ক অভিজিতের মতো কট্টর হিন্দুত্ববাদী তথা স্বঘোষিত ‘দেশপ্রেমিক’ খোলা চিঠিতে আমিরকে তুলোধনা করেছিলেন৷ অনুপম খের জানিয়েছিলেন, এ দেশেই তাঁকে সুপারস্টার তৈরি করেছে, স্ত্রীকে যেন সে কথা বলেন আমির৷ পালটা জবাব দিয়ে কেউ কেউ বলছিলেন,আমির স্বীয় প্রতিভাতেই স্টার বনেছেন৷ বিতর্কের মুখে পুনরায় মুখ খোলেন আমির৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তিনি জানান, তিনি দেশ ছাড়ার কথা বলেননি৷ তিনি যা বলেছিলেন সেই অবস্থান থেকে তিনি সরেও যাচ্ছেন না৷ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতার উদ্ধৃতি দিয়ে দেশের সংহতি, সংস্কৃতি, বহুত্ববাদের কথা তুলে ধরেন তিনি৷

আমিরের আগে অসহিষ্ণুতা নিয়ে মুখ খুলে সংঘ পরিবারের কোপে পড়েছিলেন শাহরুখ খানও৷ ৫০ তম জন্মদিনের সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছিলেন, দেশ এখন অসহিষ্ণুতার শীর্ষে৷ এরকম চলতে থাকলে দেশের অধিবাসীরা যে অন্ধকার যুগে ফিরে যাবে এমন মতও প্রকাশ করেছিলেন তিনি৷ কিন্তু সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, দেশ নিয়ে তাঁর কোনও অভিযোগ নেই৷ ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার কোনও প্রশ্নই নেই৷ বলিউডি স্টার হিসেবে তাঁরা যা পেয়েছেন তা এই দেশেই তাঁদের দিয়েছে৷ আরও একধাপ এগিয়ে তিনি বলেন, ‘‘ আমি আমার সন্তানদের বলি ধর্ম দিয়ে কোনওকিছু বিচার না করতে৷ ধর্ম নিয়ে ছোটখাটো ঝামেলা চলতেই থাকে৷ কখনও কখনও কেউ প্রেক্ষিতের বাইরে গিয়ে মন্তব্য করে ফেলেন ৷ কিন্তু তার মানে এই নয় যে, দেশ আমার প্রতি অসহিষ্ণু হয়ে উঠছে৷’’

স্পষ্টতই ব্যক্তিগত জায়গায় দেশের বিরুদ্ধে তার অভিযোগহীন অবস্থান পরিষ্কার করে দিয়েছেন কিং খান৷ বলিঅন্দরে জল্পনা, তবে কি আমিরকেই জবাব দিলেন শাহরুখ? আমির অসহিষ্ণুতা প্রসঙ্গেই ব্যক্তিস্বার্থ সামনে টেনে এনেছিলেন৷ ভয়ের আবহে সন্তানের নিরাপত্তা নিয়ে তাঁর স্ত্রীর স্বাভাবিক শঙ্কার থেকেও সমালোচনার ঢেউ উঠেছিল, তাঁর স্ত্রীর দেশ ছাড়ার আশঙ্কা নিয়ে৷ প্রশ্ন উঠেছিল, কেন শঙ্কায় দেশ ছাড়ার ভাবনা? কেন দেশে থেকেই পরিবর্তনের চিন্তা নয়? আজ শাহরুখ ব্যক্তিগত জায়গা থেকে তাই পরিষ্কার করে জানিয়ে দিলেন, এহেন কোনও শঙ্কা অন্তত তার পরিবারে নেই৷ দেশের অসহিষ্ণুতা নিয়ে তাঁর মন্তব্যে অনড় থাকলেও, ব্যক্তিগতভাবে দেশের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই বলেই জানিয়েছেন তিনি৷

খান সাম্রাজ্যে আগে বিরোধের আবহ থাকলেও, স্মরণকালের অতীতে তা অনেকটাই বন্ধুত্বের পরিবেশে বদলে গিয়েছিল৷ শাহরুখের এ মন্তব্যের পর অনেকেই মনে করছেন, তবে কি আবার দুই খানের দ্বৈরথ জমে উঠল?

You Might Also Like