ভারতে উচ্চমাত্রার সতর্কতা জারি

ভারতজুড়ে উচ্চমাত্রার সতর্কতা জারি শীর্ষ নিউজ ডেস্ক: ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর গোটা ভারতে উচ্চমাত্রার সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ভারতের প্রতিটি রাজ্যকে নিরাপত্তা  জোরদার করার জন্য বলা হয়েছে। শনিবার সকালেই হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি এবং বাণিজ্যনগরী মুম্বাইতে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আশঙ্কা, মুম্বাইয়ে হওয়া ২৬/১১  ধাঁচে ফের ভারতের মাটিতে হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা। তাই শনিবার সকাল থেকেই ভারতের প্রতিটি রাজ্যের বড় বড় শহরে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করার কাজ শুরু হয়েছে।

ভারতের বিভিন্ন শহরের পাঁচতারকা হোটেল, নামিদামি রেস্তোরাঁ, ঐতিহ্যবাহী স্থান, পর্যটনস্থল, অডিটোরিয়ামসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে পুলিশ মোতায়েন করার জন্য সুপারিশ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তা ছাড়া দেশের সর্বত্র সরকারি অনুষ্ঠানে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া আজ থেকে কলকাতায় শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব। এর উদ্বোধনে উপস্থিত থাকেন একঝাঁক তারকা। প্রতিদিন এ উৎসবে দেশ-বিদেশের গুণী মানুষদের আনাগোনা ঘটবে। এ জন্য এ উৎসবেও নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করার সুপারিশ করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ সরকার চলচ্চিত্র উৎসবে নজিরবিহীন নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে। পাশাপাশি কলকাতার হাওড়া ব্রিজ, হাওড়া স্টেশন, শিয়ালদহ স্টেশন, চিড়িয়াখানা, জাদুঘর, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালসহ বিশেষ স্থানগুলোতে জোরদার করেছে নিরাপত্তাব্যবস্থা।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এই সাবধানবাণীর মধ্যেই আজ দুপুরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য প্রশাসনিক ভবন নবান্নে বোমাতঙ্ক ছড়ায়। নবান্নের সামনে সুতলি পাকানো একটি বস্তুকে ঘিরে এই আতঙ্ক তীব্রভাবে ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ এবং বোমা স্কোয়াডের কর্মীরা এসে সেটি উদ্ধার করে। তবে সন্দেহজনক কিছু পাওয়া যায়নি।

প্যারিস হামলার দায় স্বীকার করেছে কুখ্যাত সন্ত্রাসী সংগঠন আইএসআইএল। ভারতে এই সন্ত্রাসী সংগঠনটি তৎপরতা বাড়ানোর চেষ্টা করছে বলে আগেই স্পষ্ট হয়েছে। এজন্য কোনো ঝুঁকি না নিয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে গোটা ভারতজুড়ে সতর্ক থাকার কথা বলা  হয়েছে। গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে বিশেষ করে ভারতের দিল্লি এবং মুম্বাইতে কড়া নজর রাখার ওপর জোর দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে, দিল্লিতে ফ্রান্স দূতাবাসের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

ফ্রান্সে ভারতীয় দূতাবাসের পক্ষ থেকে বিশেষ হেল্পলাইন খোলা হয়েছে। ফ্রান্সে ভারতের ডেপুটি চিফ অব মিশন মনীশ প্রভাত বলেছেন, সন্ত্রাসী হামলায় এখন পর্যন্ত কোনো ভারতীয়ের হতাহতের খবর পাওয়া যায় নি। ফ্রান্সে ভারতের রাষ্ট্রদূত মোহন কুমার জানিয়েছেন, ‘ভারতীয় দূতাবাসের হেল্পলাইন ০১৪০৫০৭০৭০ খোলা হয়েছে। আশা করছি সকল ভারতীয় নিরাপদে রয়েছেন।’

ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্যারিসের হামলাকে মুম্বাই হামলার সঙ্গে তুলনা করে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের প্যারিসের মতো মুম্বাইতে সন্ত্রাসীরা এক সঙ্গে বেশ কয়েকটি স্থানে হামলা চালিয়েছিল। মুম্বাইয়ে জনবহুল রেল স্টেশন, হোটেল এবং রেস্টুরেন্টকে নিশানা করেছিল সন্ত্রাসীরা।

ভারতের প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট সোনিয়া গান্ধীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন। প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায় প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলার কঠোর নিন্দা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক টুইট বার্তায় বলেছেন,‘এই দুঃসময়ে ফ্রান্সের পাশেই আছে ভারত।’

You Might Also Like