নেত্রকোনায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

নেত্রকোনার মদন উপজেলার বৃবড়িকান্দি গ্রামের পরিতোষ সামন্তকে (৩৫) স্ত্রী রত্না রানীকে (২৮) হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে নেত্রকোনার অতিরিক্ত দায়রা জজ মো. আবদুল হামিদ আসামির উপস্থিতি এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, নেত্রকোনার খালিয়াজুলী উপজেলার আদমপুর গ্রামের রত্নার সঙ্গে ২০০১ সালে পার্শ্ববর্তী বৃবড়িকান্দি গ্রামের পরিতোষ সামন্তের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হত। এরই জেরে ২০০৬ সালের ২৮ আগস্ট পরিতোষ রত্নাকে কোদাল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎক ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। পরে সেখানে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের বোন সুপ্তা রানী বাদী হয়ে পরিতোষের বিরুদ্ধে মদন থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ২০০৭ সালের ২২ জানুয়ারি আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। বিজ্ঞ বিচারক আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আজ এই রায় দেন।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পি.পি অ্যাডভোকেট সুভাষ বনিক অজয় এবং আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট অশোক কুমার তালুকদার।

You Might Also Like