কক্সবাজারে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড

কক্সবাজারে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. সাদিকুল ইসলাম তালুকদার এ আদেশ দেন।

মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামি মো. শহীদুল্লাহ ওরফে শহীদুল ইসলাম কুতুবদিয়ার বড়ঘোপ ইউনিয়নের মাতব্বর পাড়ার শামসুল আলমের ছেলে।

কক্সবাজার আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) দীলিপ কুমার ধর রাইজিংবিডিকে জানান, বিয়ের পর থেকে স্ত্রী এস্তফা বেগমকে নিয়ে শহীদুল্লাহ পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের রব্বাত আলী পাড়ায় আহমদ হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থাকতো। এস্তফার বড় এক বোনও সেখানে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতো। যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে প্রায় সময় মারধর করতো শহীদুল্লাহ। ২০১৪ সালের ২৫ আগস্ট সন্ধ্যার দিকে পুকুর পাড়ে বড় বোনের স্বামীর সঙ্গে এস্তফাকে আলাপ করতে দেখে শহীদুল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়। ওইদিন রাত ২টার দিকে শ্বাসরোধ করে এস্তফাকে হত্যা করে সে। এ ঘটনার পরদিন পেকুয়ার আরবশাহ বাজার থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। আর ঘটনার পরদিন নিহতের বাবা বাদী হয়ে পেকুয়া থানায় মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পরে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেয়।

তিনি আরো জানান, এস্তফা হত্যার ঘটনায় পুলিশ এবছরের ৩১ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করে এবং ২৮ জুলাই আদালত চার্জগঠন করেন। আসামির উপস্থিতিতে আজ আদালত মামলার শুনানি শেষে শহীদুল্লাহর মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন।

মামলায় আদালতে আসামমি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন মোহাম্মদ মোস্তফা।

You Might Also Like