পারিবারিক সচেতনতা সচেতনতার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম কমিউনিটিতে নারী নির্যাতন অপরাধপ্রবণতা কমান সম্ভব

পারিবারিক সচেতনতা সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম কমিউনিটিতে নারী নির্যাতন অপরাধপ্রবণতা কমান সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন সিটি কাউন্সিলম্যান ড্যানিয়েল ড্রম। তিনি বেসরকারি সংস্থা টার্নিং পয়েন্ট’র সভায় এ মন্তব্য করেন। গত শুক্রবার বিকালে প্রবাসী বাংলাদেশি অধ্যুষিত নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের পালকি পার্টি সেন্টারে টার্নিং পয়েন্ট’র আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন এক সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনের সঞ্চালক ছিলেন, টার্নিং পয়েন্টের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক রুবিনা নিয়াজ। আরো বক্তব্য রাখেন, নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলম্যান ড্যানিয়েল ড্রম, সংবাদ সম্মেলনের সহ-আয়োজক নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক বর্ণমালা সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, সাংবাদিক সামশাদ হুশাম, বেসরকারি সংস্থা ছায়া সিডিসি’র নির্বাহী পরিচালক আফরিন হক, টার্নিং পয়েন্টের এডুকেশন অ্যান্ড আউটরিচ কো-অর্ডিনেটর সাঈদা রশীদ প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে সিটি কাউন্সিলম্যান ড্যানিয়েল ড্রম ‘ডমেস্টিক ভায়োলেন্স’ বন্ধে সচেতনতা বৃদ্ধি কার্যক্রমে সবাইকে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে বলেন, একমাত্র পারিবারিক সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে এ ধরনের অপরাধপ্রবণতা কমাতে হবে। এ ব্যাপারে তিনি কমিউনিটির যে কোনো কার্যক্রমে সিটি কাউন্সিলের পক্ষ থেকে সহায়তা দিতে প্রস্তুত রয়েছেন বলে জানান তিনি।

কাউন্সিলম্যান ড্রম আরো বলেন, কোনো নারীরই ভীতি ও সহিংসতার ছায়ায় বসবাস করা উচিত নয়। এজন্য কমিউনিটিতে সচেতনতা বৃদ্ধি  করতে হবে।

রবিনা নিয়াজ বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে নারী নির্যাতন প্রতিটি সমাজেই হচ্ছে। এজন্য যার যার অবস্থান থেকে নারী নির্যাতন বন্ধে সচেতনতা বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, ভাষাগত দুর্বলতা বিশেষ করে ইংরেজি না জানায় অনেক নারী গৃহে নির্যাতনের বিরুদ্ধে মুখ খুলছেন না। অনেকে এ কারণে সুষ্ঠু প্রতিকারও খুঁজে পাচ্ছেন না। এসব নারীদের জন্য কাজ করছে টার্নিং পয়েন্ট।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্য বক্তারা বলেন, প্রতিকূল পরিবেশে কিভাবে এসমস্যা সমাধান করা যায় তার প্রতিকারের জন্য নারীদেও মানুষিক শক্তি অর্জন করতে হবে।

You Might Also Like