‘দলীয় প্রতীকে স্থানীয় নির্বাচন গণতন্ত্রকে দুর্বল করবে’

দলীয় প্রতীকে স্থানীয় নির্বাচন জনগণের ক্ষমতায়নের পরিবর্তে শাসক দলের ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার সুযোগ সৃষ্টি করবে বলে মনে করেন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি। এর ফলে দেশের গণতন্ত্র দুর্বল হবে বলেও অভিমত প্রকাশ করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বারিধারায় নিজ বাসভবনে দলের বিভিন্ন জেলার নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

ন্যাপ মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ন্যাপ নরসিংদী জেলা আহ্বায়ক মো. রফিকুল ইসলাম, গাজীপুর মহানগর সমন্বয়ক আবদুল হালিম, টাঙ্গাইল জেলা সমন্বয়ক প্রফেসর আকবর আলী, শেরপুর জেলা সমন্বয়ক মো. ইমামউদ্দিন মিয়া, জমালপুর জেলা সমন্বয়ক হাফেজ খলিলুর রহমান প্রমুখ।

জেবেল রহমান বলেন, গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে অবৈধ ও কালোটাকার খেলা বন্ধ, পেশিশক্তির ব্যবহার বন্ধ এবং প্রশাসনিক কারসাজি থেকে নির্বাচনকে মুক্ত করাটা সবচেয়ে জরুরি। তা না করে সরকার তার অবৈধ ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করতেই স্থানীয় নির্বাচন দলীয় প্রতীকে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গ্রাম অঞ্চলের শান্তিপূর্ণ নির্বাচন ব্যবস্থাকে বিনষ্ট করার জন্যই সরকার এই নীলনকশা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে, অভিযোগ করে এই জোট নেতা বলেন, দেশের গণতন্ত্র, আইনের শাসন, বাক-ব্যক্তি স্বাধীনতা, জনগণের নিরাপত্তা; এই ফ্যাসিবাদী সরকারের শাসনামলে জনগণ সব হারিয়েছে। তাই সময় এসেছে সরকারের বিরুদ্ধে নতুনভাবে প্রস্তুতি নিয়ে গণ-আন্দোলন গড়ে তোলার।

সভাপতির বক্তব্যে গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে কোনো নির্বাচনই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়নি। একদলীয় জাতীয় সংসদ থেকে শুরু করে স্থানীয় সরকারের সকল স্তরের নির্বাচনে সরকার ব্যালট ডাকাতির মাধ্যমে দলীয় লোকদের বসিয়েছে। অন্যদিকে সমগ্র প্রশাসনকে দলীয়করণ করা হয়েছে। এ অবস্থায় দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়ার আশা করা কল্পনার রাজ্যে বাস করার মতো।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের পেশিশক্তি ও সন্ত্রাসের কাছে গোটা জাতি যেখানে জিম্মি হয়ে রয়েছে, সেখানে জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবে বলে বিশ্বাস করে না। এ অবস্থায় গণতন্ত্র বিপন্ন হবে এবং সরকার একদলীয় বাকশালী শাসন পরিপূর্ণভাবে জাতির ঘাড়ে চাপিয়ে দেবে।

সভায় মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ঘনিষ্ঠ অনুসারী, ভাষাসৈনিক, প্রবীণ রাজনীতিক কমরেড নুরুল হক মেহেদীর মৃত্যুতে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে তার অমর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানানো হয়।

You Might Also Like