পারস্য উপসাগর থেকে সরে গেল মার্কিন বিমানবাহী রণতরী

পারস্য উপসাগর থেকে বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টকে সরিয়ে নিয়েছে আমেরিকা। রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজগুলো যখন এ অঞ্চলে ঢুকছে তখন রুজভেল্টকে সরিয়ে নেয়া হলো। ২০০৭ সালের পর এই প্রথম পারস্য উপসাগরে আমেরিকার কোনো বিমানবাহী রণতরী নেই বলে জানিয়েছে মার্কিন নিউজ চ্যানেল এনবিসি নিউজ।

পেন্টাগনের কর্মকর্তারা বলেছেন, বৃহস্পতিবার বিশাল রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টকে পারস্য উপসাগর থেকে সরিয়ে নেয়া হয়। কাস্পিয়ান সাগর থেকে রুশ নৌবাহিনী সিরিয়ার সন্ত্রাসী অবস্থানের ওপর ২৬টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত হানার মাত্র একদিন পর মার্কিন বিমানবাহী রণতরীকে সরিয়ে নেয়া হলো। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঘোষণায় বলা হয়েছে, লক্ষ্যবস্তুর নয় ফুটের মধ্যেই এ সব নতুন কালিবার-এনকে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানতে পেরেছে।

এদিকে, মার্কিন সেনা কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, রক্ষণাবেক্ষণের প্রয়োজনে বিশাল এ রণতরীকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টে প্রায় পাঁচ হাজার সেনা এবং ৬৫টি যুদ্ধবিমান রয়েছে।

গত মাসের ৩০ তারিখ থেকে রুশ বিমান বাহিনী সিরিয়ায় তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল’র বিরুদ্ধে বিমান হামলা শুরু করেছে। এ হামলাকে কেন্দ্র করে রুশ-মার্কিন উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে।

You Might Also Like