বিদেশি মেরে আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন খালেদা: শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দেশে ব্যর্থ হয়ে বিদেশে বসে নতুন ষড়যন্ত্র করছেন। বিদেশে বসে তিনি বাংলাদেশে থাকা বিদেশিদের হত্যা করে তাঁদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন। আর এর মাধ্যমে তিনি দেশকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা চালাচ্ছেন।
আজ শনিবার দুপুরে গণভবনে গাজিপুর, গোপালগঞ্জ, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও রংপুর জেলা আওয়ামী লীগ-সমর্থিত আইনজীবী সমিতির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী এসব কথা বলেন।
খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘এখন বিদেশে বসে নতুন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন। সেই ষড়যন্ত্র কী? বিদেশে থেকে ওদিকে লবিস্ট রেখেছেন। ইউরোপ, ইউকে, ইউএসএ বিভিন্ন জায়গায় জামায়াত এবং বিএনপি মিলে নানা ধরনের অপপ্রচার এবং একটা প্যানিক (আতঙ্ক) ছড়ানো। বিদেশে বসে বসে বাংলাদেশে বিদেশিরা যারা আছে, তাদের হত্যা করে বিদেশিদের মধ্যে একটা আতঙ্ক সৃষ্টি করে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করা। উনি দেশে থেকে দেশের মানুষ পুড়িয়ে, আর বিদেশে থেকে দেশে থাকা বিদেশি যারা আছে, তাদের মেরে ওনার আন্দোলন।’
শেখ হাসিনা বলেন, ‘উনি দেশে থেকে দেশের মানুষ হত্যা করেছেন। এখন আবার উনি বিদেশে গেছেন। বিদেশে বসে এখন দেশে একটা অস্থিতিশীল অবস্থা সৃষ্টির পরিকল্পনা নিয়েছেন। এখন নাকি আন্দোলনের কৌশল পাল্টেছেন। সেই কৌশল তিনি ব্যবহার করছেন।’
দেশবাসীকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘যখনই দেশের উন্নতি হয়, দেশ যখন আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সম্মানজনক অবস্থানে যায় তখন বিএনপি-জামায়াত জোট তাদের একটা অন্তঃ পীড়া শুরু হয়ে যায়। দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য এরা উঠে পড়ে লাগে। তখন তারা খুন করা, নানান ধ্বংসাত্মক কাজ করাসহ যা যা করা দরকার তাই করে। এ জন্য জনগণকে সচেতন হতে হবে।’
এর আগে দীর্ঘ মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম থেকে নির্বাচিত বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য ইব্রাহিম হোসেন, চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সভাপতি মুজিবুল হক চৌধুরী, বরিশাল আইনজীবী সমিতির সভাপতি আনিস উদ্দীন শহীদ ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ মনিরুল হাসান, রংপুর আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক, গোপালগঞ্জ আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিরউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী খান এবং গাজীপুর আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজমতউল্লা খান ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইব্রাহিম।
আইনজীবীরা তাঁদের বক্তব্যে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া ও সমস্যা নিয়ে কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে আইনজীবীদের সমস্যা সমাধানে আশ্বাসও দেন।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, সাবেক আইন মন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ প্রমুখ।

You Might Also Like