বগুড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে আশিমুদ্দিন (৭০) নামের এক বৃদ্ধ গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

তিনি উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের সিধলই গ্রামের বাসিন্দা।

বুধবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে।

জানাগেছে, আশিমুদ্দিনের কোন ছেলে সন্তান নেই। এক মেয়ে বিয়ের পর ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকুরি করে। বৃদ্ধ বয়সে সংসার চালাতে আশিমুদ্দিন বিভিন্ন এনজিও ও ব্যক্তির কাছ থেকে চড়া সুদে ঋণ নেয়। কিন্তু আয়ের কোন উৎস না থাকায় তার ঋণের বোঝা দিন দিন বাড়তে থাকে।

এক দিকে সংসারে অভাব অনটন অন্য দিকে এনজিও কর্মী ও পাওনাদারদের চাপে পড়েন বৃদ্ধ আশিমুদ্দিন। একপর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে সবার অগোচরে আশিমুদ্দিন বাড়ির পার্শ্বে মসজিদের আম গাছের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। বুধবার সকালে গ্রামের লোকজন লাশ দেখে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি শামিম ইকবাল জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তারপরেও ওই বৃদ্ধ দুই পা মাটিতে লেগে থাকায় অনেকে মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ করায় লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে।

You Might Also Like