অনুপ্রবেশ বন্ধ করতে সীমান্তে রিমোট নিয়ন্ত্রিত বন্দুক বসাচ্ছে ভারত

ভারতীয় সেনারা চলতি বছরের মধ্যে ভারত-পাক সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর রিমোটচালিত উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন বন্দুক বসাতে যাচ্ছে। পীর পাঞ্জাল এলাকাতেই প্রথম এর সূচনা হবে। এ ধরণের বন্দুক ব্যবহারের ফলে অনুপ্রবেশকারী সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত সেনার সংখ্যা কমে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে। এরইমধ্যে কাশ্মির উপত্যাকার আখনূর সেক্টরে অত্যাধুনিক স্টেন সাব-মেশিনগানের প্রথম প্রোটোটাইপের সফল পরীক্ষা চালানো হয়েছে। এবার লাইট মেশিনগানের পরীক্ষা চলবে।

দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি সাব-মেশিনগানে ইনফ্রারেড সেন্সর থাকায় কাঁটাতারের বেড়ার ওপারের ৮০ মিটার পর্যন্ত যেকোনো গতিবিধি ধরে রাখতে সক্ষম। কাঁটাতার থেকে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা অবশ্য ৫০ মিটার থেকে ২ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন এসব বন্দুকের সঙ্গে সেন্সর এবং নাইট-ভিশন ক্যামেরা থাকায় তার ছবি সরাসরি ওয়ার্ক স্টেশনে বা বাঙ্কারে সেনা কমান্ডারের কাছে পৌঁছে যাবে। সেখান থেকেই বোতাম টিপে সন্দেহভাজন অনুপ্রবেশকারী সন্ত্রাসীদের মোকাবিলা করবে সেনা।

জম্মু-কাশ্মিরের নাগরোটায় ১৬ কোরের সেনা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট জেনারেল আর আর নিম্বোদকর জানান, পীর পাঞ্জাল রেঞ্জের দক্ষিণের এলাকা অত্যন্ত দুর্গম হওয়ায় এখানে প্রহরার কাজ চালানো অত্যন্ত কঠিন।

সেনা কর্মকর্তারা বলছেন, রিমোট চালিত এই বন্দুক সেনা জওয়ানদের সাহায্য করার পাশাপাশি তাদের রক্ষা করবে।

কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে অনেক দিন ধরে সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়াতে রিমোটচালিত অত্যাধুনিক বন্দুকের কথা ভাবা হলেও এবার এ নিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ক থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

You Might Also Like