হ্যাপির নতুন উক্তি: রুবেল আমার বিশ্বাস নিয়ে প্রতারণা করেছে!

আলোচিত ও সমালোচিত নাম নাজনীন আক্তার হ্যাপি। বিভিন্ন সময়ে মন্তব্য, কার্যকলাপ এবং আচরণের কারণে বিতর্কিত তিনি। দেশের অন্যতম আলোচিত ঘটনা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে চিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপী। রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে দায়ের করেন নায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপী।
সোমবার ৫ অক্টোবর রাত ৮.৪৭ মিনিটে হ্যাপী তার নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, রুবেল নামের এই মানুষটি আমাকে সারা দুনিয়ার কাছে মিথ্যা দিয়ে অপমান, অপদস্ত, অসম্মান করেছে, আমার সাথে বিশ্বাস নিয়ে খেলেছে, প্রতারণা করেছে। আমি বিচারও দাবি করেছিলাম নিজের অধিকার পাওয়ার জন্য। মন থেকে বলছি তার শাস্তির জন্য কিছুই করি নি। শুধু নিজের অধিকার চেয়েছিলাম।
পাঠকদের কাছে হ্যাপির স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে ধরা হল:
আসসালামু আলাইকুম
আমি জানি অনেকেই আমাকে একজন মানুষ হিসাবে অনেক ভালবাসেন। হয়তো আমি এত ভালবাসা পাওয়ার যোগ্য নই, এর জন্য আমার সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে হাজারো শুকরিয়া জানাই। আসল কথায় আসি, অনেক ভেবেছি যে এই বিষয়ে কোন কথা বলবো না তবুও না বলে পারলাম না কারণ আমি চাই না আমার জন্য কেউ অসম্মানীত হোক, অপমানীত হোক, তা সে যতই অন্যায় করুক না কেন!
একটু খেয়াল করলে দেখবেন যে, রুবেলের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে হাজার হাজার লাইক কিন্তু কমেন্ট বক্স তুলনামূলক ফাকা অনেক পোষ্টে যেখানে ঘন্টায় হাজার লাইক পার হয়ে যায় অথচ কমেন্ট ২/৩ টা( যদিও পরে কমেন্ট বাড়ে )। এর মানে কি দাড়ালো? লোকে কমেন্ট কম করে! জ্বী না, লোকে কমেন্ট স্বাভাবিক মাত্রাতেই করে কিন্তু সেই কমেন্টগুলো রেখে দেওয়া সম্ভব হয় না কারণ ৯৫% মন্তব্যেই তাকে গালাগালি করা হয়, অপমান করা হয়। ভেরিফাইড পেইজে তো সেগুলো রাখা সম্ভব নয়।
আর তার ব্যক্তিগত আইডিতে সাধারণ লোকের অর্থাৎ ফ্রেন্ডলিস্টের বাইরের কেউ কমেন্ট করার সুযোগ নেই। যদিও সেখানকার চিত্র একদমই আলাদা। কমেন্ট বক্সে বেশিরভাগই নারীদের প্রসংসাতে উজ্জ্বল!
অন্যান্য সাইট বা পেইজ গুলোতে তার কোন হাত নেই। সেটা যে কোন ক্রিকেটারের বা ক্রিকেটিয় পেইজ হোক না কেন। সেখানে পেইজের এডমিন রুবেলের ছবি আপলোড করলে সে তো ঐ ছবির কমেন্ট ডিলিট করার দায়িত্ব নেবে না। আর দায়িত্ব নিতে গেলে সারাদিন সব বাদ দিয়ে কমেন্টই ডিলিট করতে হবে।এত কারও সময় নেই।আর সাধারণ মানুষগুলো তাদের মন্তব্য তো করবেই।
এত কথা যে কারণে বলা, আমার জীবনে আল্লাহ একটা খারাপ সময় দিয়েছিল যেটার জন্য আমি এক প্রকার যুদ্ধ করেছি। আর রুবেল নামের এই মানুষটি আমাকে সারা দুনিয়ার কাছে মিথ্যা দিয়ে অপমান, অপদস্ত, অসম্মান করেছে, আমার সাথে বিশ্বাস নিয়ে খেলেছে, প্রতারণা করেছে। আমি বিচারও দাবি করেছিলাম নিজের অধিকার পাওয়ার জন্য। মন থেকে বলছি তার শাস্তির জন্য কিছুই করি নি। শুধু নিজের অধিকার চেয়েছিলাম। কিন্তু আমার সম্মান আমি পাই নি। আর কোন সুষ্ঠু বিচারও পাইনি, কেন পাইনি এটা সবাই জানে। সেসব বাদ। ঐসব নিয়ে আর ভাবতে চাই না।
রুবেল আজ ছবি পোষ্ট করলে তাকে সহ তার বাবা-মা তুলে নোংরা কথা বলে বেশিরভাগ লোক। মূলত আমার সাথে অন্যায়ের প্রতিবাদ করে তারা। অনেকে আমাকে মেনশন করে প্রশ্ন করে ” দেখেছেন হ্যাপী আপু সবাই আপনাকে কত ভালবাস্তে”
কিন্তু আমি এসবে মোটেও আনন্দ অনুভব করি না বরং কষ্ট পাই। কারণ যে যা অন্যায় করবে তার সাজা আল্লাহ অবশ্যই দিবেন। আল্লাহ সব কিছু দেখেন। সবাই সবার কৃতকর্মের ফল পাবে। তাহলে আমি বা আপনি নোংরা কথা বলে নিজেরা কেন পাপের বোঝা নেব? আমি অনুরোধ করছি যদি খারাপ কিছু বলতেই হয় আমাকে বলুন তবুও রুবেলকে কিছু বলবেন না। গালাগালি করতে ইচ্ছা আমাকে করুন রুবেলকে না। আমি চাই না আমার জন্য কেউ সত্যিই অসম্মানিত হোক।
আমাকে যদি সত্যিই আপনারা একজন মুসলিম বোন হিসাবে ভালবাসেন তাহলে আজকের পর থেকে আমার জন্য রুবেলকে আর অসম্মান বা গালি দিবেন না। পারলে রুবেলকে সম্মান করুন। অন্যকে সম্মান করলে নিজেরই সম্মান বাড়ে। আল্লাহ নিশ্চয় ন্যায়বিচারক , তিনি সবকিছুরই হিসাব নিবেন। আমার সবকিছুই আল্লাহ দেখছেন তিনি অবশ্যই আমার সহায় আছেন। আল্লাহ তার সময়মত আমার সাথে যারা অন্যায় করেছে তাদের শাস্তি দিবেন। ইনশাল্লাহ। আল্লাহ সবাইকে হেদায়েত দান করুক। আমীন।

You Might Also Like