পশ্চিমা বিমান হামলার বিরুদ্ধে জাতিসংঘে অভিযোগ করল সিরিয়া

পশ্চিমা কয়েকটি দেশের বিমান হামলার বিরুদ্ধে জাতিসংঘে অভিযোগ করেছে সিরিয়া। এ নিয়ে সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন এবং নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি ভিতালি চুরকিনের কাছে গতকাল (বৃহস্পতিবার) দুটি আলাদা চিঠি দিয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে- ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং অস্ট্রেলিয়া সিরিয়ার মাটিতে বিমান হামলার বিষয়ে যে পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে আরব এ দেশটির সার্বভৌমত্ব মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন হচ্ছে এবং জাতিসংঘ সনদেরও পরিপন্থি। ভিতালি চুরকিন হচ্ছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত।

চিঠিতে বলা হয়েছে- কথিত সন্ত্রাসবাদ বিরোধী লড়াইয়ের নামে দামেস্কের অনুমতি ছাড়া সিরিয়ার মাটিতে বিদেশি শক্তির যেকোনো ধরনের অস্ত্রের উপস্থিতি জাতীয় সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন বলে গণ্য করা হবে। এছাড়া, পশ্চিমাদের আগ্রাসী পদক্ষেপের কারণে সিরিয়ায় যুদ্ধ এবং বিশৃঙ্খলা আরো বাড়বে বলে আশংকা রয়েছে।

চিঠি দুটিতে ইউরোপীয় দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়েছে- তারা যদি সত্যিই সন্ত্রাস-বিরোধী লড়াই চায় তাহলে সন্ত্রাসীদেরকে অস্ত্র ও মিডিয়ার সমর্থন দেয়া বন্ধ করুক।

গত বুধবার ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, তার দেশ সিরিয়ায় তৎপর আইএসআইএল সন্ত্রাসীদের ওপর বিমান হামলা শুরু করবে। গত ৮ সেপ্টেম্বর থেকে ফরাসি গোয়েন্দা বিমান সিরিয়ার সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তু নির্ধারণের জন্য নজরদারি চালাচ্ছে। গত ১২ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, তারা কথিত আন্তর্জাতিক জোটে যোগ দেয়ার পর সিরিয়ায় আইএসআইএল’র অবস্থানে প্রথমবারের মতো বিমান হামলা চালিয়েছে। এছাড়া, চলতি মাসের প্রথম দিকে ব্রিটেন বলেছে, সন্ত্রাসী এ গোষ্ঠীর ওপর ড্রোন হামলা করতে ব্রিটিশ সরকার মোটেই দ্বিধা করবে না।

You Might Also Like