যুক্তরাষ্ট্রে আদালতে গুলি, আসামী নিহত

আদালতে বিচার চলাকালীন সাক্ষ্য দিতে থাকা সাক্ষীর ওপর চড়াও হওয়ার মাশুল দিতে হল ২৫ বছরের তরুণ সিয়ালি অ্যাঞ্জিলাউকে। আদালতের ভিতরেই আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার মার্শালের গুলিতে আহত হয়ে পরে মারা যান তিনি। সোমবার ইউটা অঙ্গরাজ্যের সল্ট লেক সিটির ফেডারেল আদালতের ভেতর এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

অ্যাঞ্জিলাউয়ের শরীরে কয়েকটি গুলি লাগে। হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান তিনি। জুরিদের সামনেই এ ঘটনা ঘটে।

নিহত অ্যাঞ্জিলাউ একটি কলম হাতে সাক্ষীর দিকে “আক্রমণাত্মক, ভীতিকর ভঙ্গিতে” ঝাঁপিয়ে পড়েন বলে জানিয়েছে এফবিআই। একটি অপরাধী দলের অভিযুক্ত ১৭ জনের মধ্যে শেষ জন ছিলেন তিনি। অস্ত্র নিয়ে হামলা, ডাকাতি, প্রতারণা, লাঞ্ছনা করা ইত্যাদি ২৯ ধরনের অভিযোগে ২০১০ সালে করা এক মামলায় বিচার চলছিল তার।

অ্যাঞ্জিলাউকে ছয়টি গুলি করা হয় বলে জানিয়েছেন পেরি কার্ডওয়েল। ঘটনার সময় নিজ কন্যাকে নিয়ে আদালতে উপস্থিত ছিলেন তিনি। “এটি মর্মাহত হওয়ার মতো ঘটনা,” বলেন তার কন্যা সারা জ্যাকবসন।

অ্যাঞ্জিলাউ মারা গেলেও যাকে তিনি মারতে গিয়েছিলেন সেই সাক্ষীর কোনো আঘাত লাগেনি। তার পরিচয় জানা যায়নি।

সল্ট লেকের ডিস্ট্রিক্ট বিচারক টেনা ক্যাম্পবেল বিচারের আর বৈধতা নেই বলে আদেশ জারি করে এ ঘটনায় জুরি বোর্ডের সদস্যরা বিব্রত ও বিপর্যস্ত বোধ করছেন বলে লিখিত মন্তব্য করেছেন। ঘটনার পর আদালতের কার্যক্রম কিছু সময়ের জন্য বন্ধ রাখা হলেও পরে আবার শুরু করা হয়।

 

 

 

You Might Also Like