প্রাচীন মানুষের দেহাবশেষের সন্ধান (ভিডিও)

দক্ষিণ আফ্রিকার একটি গুহা থেকে ‘হোমো নালেদি’ প্রজাতির মানুষের আরও দেহাবশেষের সন্ধান পাওয়া গেছে। প্রতœতত্ত্ববিদরা বৃহস্পতিবার এ আবিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন। খবর আলজাজিরার।
উইটওয়াটারসরেন্ড (উইটস) বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলেছেন, ধারণা করা হচ্ছে, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই তাদের রাইজিং স্টার গুহায় কবরস্থ করা হয়েছিল। প্রথমে তাদের আধুনিক পর্বের মানুষ মনে করা হলেও পরে তাদের প্রাচীন বলে অনুমান করা হয়।
এর আগে ২০১৩ সালে ওই গুহা থেকে একই প্রজাতির অন্তত ১৫ জনের দেহাবশেষ আবিষ্কৃত হয়েছিল।
জোহান্সবার্গ থেকে ৫০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত গুহাটিতে আবিষ্কৃত ‘হোমো নালেদি’ প্রজাতি আমাদেরই বংশের হিসেবে ধরে নেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন বিবর্তন নিয়ে গবেষণাকারী প্রফেসর লি বার্গার।
নতুন করে আবিষ্কৃত হওয়া দেহাবশেষগুলোর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক ও শিশুদের হাড়গোড় রয়েছে। গুহার একটি কক্ষ থেকে তাদের দেহাবশেষ পাওয়া যায়।
গবেষণাকর্মটির লেখক দলের প্রধান অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের জেমস কুক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক পল ডার্কস বলেন, একটি প্রত্যন্ত কক্ষে লোকগুলোর দেহাবশেষ পাওয়া যায়। তবে সেখানে উল্লেখযোগ্য অপর কোনো প্রাণীর জীবাশ্ম পাওয়া যায়নি।
হোমো নালেদি প্রজাতির লোকেরা ঠিক কত বছর আগে পৃথিবীতে বসবাস করত তা এখনো নির্ণয় করা যায়নি। তবে ধারণা করা হয়, তারা ২৫ থেকে ২৮ লাখ বছর আগে জীবিত ছিল। রাইজিং স্টার গুহাটি ৩০ লাখ বছর আগের নয় বলে মতপ্রকাশ করেছেন প্রতœতত্ত্ববিদরা।

You Might Also Like