জামায়াতের আমির নিজামীর আপিলের পরবর্তী শুনানি ৩ নভেম্বর

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর আপিলের শুনানি ৩ নভেম্বর পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

আজ (বুধবার) দুপুরে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। বেঞ্চের অপর সদস্যরা হলেন বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ও বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

এর আগে, আজ সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটে আপিলের শুনানি শুরু হয়। রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে আপিলের নথিপত্র উপস্থাপন শুরু করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। পআর মাওলানা নিজামীর পক্ষে তার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন তুহিন মামলার সারসংক্ষেপ থেকে পড়া শুরু করেন। পরে আদালত শুনানি ৩ নভেম্বর পর্যন্ত মুলতবি করে।

২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর মতিউর রহমান নিজামীর মামলায় রায় ঘোষণা করেন বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। রায়ে ১৬টি অভিযোগের মধ্যে আটটি অভিযোগ প্রমাণিত হয়। এর মধ্যে ২, ৪, ৬ ও ১৬ নম্বর অভিযোগে বুদ্ধিজীবী গণহত্যা, হত্যা, ধর্ষণ, লুণ্ঠন, সম্পত্তি ধ্বংস, দেশত্যাগে বাধ্য করার অপরাধে রায়ে নিজামীর ফাঁসির দণ্ড দেয়া হয়।

আটটির মধ্যে বাকি ১, ৩, ৭ ও ৮ নম্বর অভিযোগে আটক, নির্যাতন, হত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের ষড়যন্ত্র ও সংঘটনে সহযোগিতার দায়ে তাঁকে দেয়া হয়েছে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। বাকি আট অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাঁকে ওই সব অভিযোগ থেকে খালাস দেয়া হয়।

এ রায়ের বিরুদ্ধে একই বছরে ২৩ নভেম্বর আপিল করেন নিজামী। ৬ হাজার ২৫২ পৃষ্ঠার আপিলে ১৬৮টি কারণ দেখিয়ে ফাঁসির আদেশ বাতিল করে খালাস চেয়েছেন তিনি।

You Might Also Like