ভারতে সৌদি কূটনীতিকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

ভারতে সৌদি আরবের দূতাবাসে কর্মরত এক সৌদি কূটনীতিকের বিরুদ্ধে দুই নেপালি নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই দুই নারী ওই কূটনীতিরে বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। একটি এনজিওর কাছ থেকে গোপন তথ্য পেয়ে সোমবার রাতে কূটনীতিকের বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ এবং ওই দুই নেপালি গৃহকর্মীকে উদ্ধার করে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির গুরগাঁওয়ে সৌদি কূটনীতিকের বাসা থেকে উদ্ধার হওয়ার পর ওই দুই নেপালি নারী পুলিশকে জানিয়েছেন, চার মাস ধরে তারা এই বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করছেন। কয়েক দিন আগে তাদের বাসায় আটকে ফেলেন ওই কূটনীতিক। এরপর তাদের ওপর ধর্ষণসহ অমানবিক যৌননির্যাতন চালান তিনি।

ওই কূটনীতিকের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার পুলিশ প্রাথমিক অভিযোগ (এফআইআর) গ্রহণ করেছে। কিন্তু এফআইআরে সৌদি কূটনীতিকের নাম লেখা হয়নি। কূটনীতিক হিসেবে তিনি হয়তো গ্রেফতার এড়াতে সক্ষম হবেন এবং ভারতীয় দ-বিধি থেকে দায়মুক্তি পাবেন।

সৌদি সরকার যদি কূটনীতিকের দায়মুক্তি দিতে না বলে এবং ভারত সরকার তা নিশ্চিত করে, কেবল তখনই অভিযুক্ত কূটনীতিকের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিতে পারে থানা। তবে টাইমস অব ইন্ডিয়া অসমর্থিত সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, সৌদি সরকার না কি ধর্ষণের অভিযোগকে ‘মিথ্যা’ বলেছে।

এদিকে মাইতি-ইন্ডিয়া নামে একটি এনজিও পুলিশকে প্রথমে বিষয়টি জানায়। আরেক গৃহকর্মী ১০ দিন আগে ওই বাসা থেকে চলে যায়। তার কাছ থেকেই তথ্য পায় এনজিওটি। পরে তারা পুলিশকে অবহিত করে এবং পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

You Might Also Like