মস্কোয় সবচেয়ে বড় পরমাণু বোমার প্রদর্শনী শুরু

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় ইতিহাসের সবচেয়ে বড় পরমাণু বোমার প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। ‘জার বোম্বা’ নামে পরিচিত এই বোমাটি সরাসরি প্রদর্শনীতে আনা হয় নি বরং তার বদলে এটির অবিকল অনুকৃতি দেখানো হচ্ছে।

চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে শুরু হওয়া প্রদর্শনী ২৯ তারিখ পর্যন্ত চলবে। রুশ আণবিক উন্নয়নের ৭০তম বার্ষিকী উপলক্ষে মস্কোর রেড স্কয়ারের ম্যানেজি কেন্দ্রে এ বোমাটি প্রদর্শিত হচ্ছে।

১৯৬১ সালের ৩০ অক্টোবর রাশিয়া আর্কটিক মহাসাগরে এএন-৬০২ বা ‘জার বোম্বা’ নামে পরিচিত বিশাল আকারের পরমাণু বোমার পরীক্ষা চালানো হয়েছিল। ২৫ টন ওজনের বোমাটির বিস্ফোরণ ক্ষমতা ছিল ৫৭ থেকে ৫৮.৬ মেগাটন টিএনটির সমান। বিস্ফোরণের পর যে বিশাল আকারের আগুনের কুণ্ডলী ওঠে তা ১,০০০ কিলোমিটার দূর থেকেও দেখা যায়। এছাড়া, আকাশে ৬৭ কিলোমিটার উচ্চতায় বিশাল মেঘমণ্ডলীর সৃষ্টি হয়। রুশ পরমাণু বোমার পরীক্ষার পর ৮০০ কিলোমিটার দূরের ঘরবাড়ির জানালার কাঁচ ভেঙে গিয়েছিল। এছাড়া, প্রায় ৪০ মিনিট ধরে রেডিও সিগন্যাল বাধাগ্রস্ত হয়।

‘ফ্যাট ম্যান’ নামে পরিচিত একটি পরমাণু বোমা ১৯৪৫ সালের ৯ আগস্ট জাপানের নাগাসাকি শহরের ওপর ফেলেছিল আমেরিকা। ‘ফ্যাট ম্যান’এর চেয়েও ৩৮০০ গুণ বেশি শক্তিশালী ‘জার বোম্বা।’ এ ছাড়া, দ্বিতীয় মহাযুদ্ধে বিশ্বের সবদেশ সম্মিলিত ভাবে যে পরিমাণ বিস্ফোরক ব্যবহার করেছিল তার চেয়েও বেশি ছিল ‘জার বোম্বা’র বিস্ফোরণ ক্ষমতা।

You Might Also Like