গ্যাস ও বিদুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে জাপার ওয়াকআউট

গ্যাস ও বিদুতের দাম বৃদ্ধি নিয়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। এ নিয়ে বিএনপি থেকে শুরু করে জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ও মানবাধিকারকর্মীরা পর্যন্ত বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।
এরই ধারাবাহিকতায় এই মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ঐক্যমতের সংসদেও বেজে উঠেছে অনৈক্যের সুর। সরকারের এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সংসদ অধিবেশন থেকে ওয়াকআউট করেছে প্রথমবারের মত বিরোধী দলে আসীন জাতীয় পার্টি।
মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে মাগরিবের নামাজের বিরতির পর পয়েন্ট অব অর্ডারে ফ্লোর নিয়ে এর প্রতিবাদ জানান বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য রওশন এরশাদ।
পেট্রোবাংলা ২০,০৮০ কোটি টাকা লাভ করার পরেও কেন হঠাৎ করে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বাড়ানো হলো- এমন প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, ‘মূল্যবৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষের অনেক কষ্ট হবে। এটা কখনো কাম্য নয়। সরকারের এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে হবে। দাম কমাতে হবে, কমাতে হবে, কমাতে হবে।’
রওশন এরশাদ বলেন, ‘যখন আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির দাম কমাল, তখন আমাদের দেশে বাড়ানো হয়েছে। জনগণ ভেবেছিল আন্তর্জাতিক বাজারে যেহেতু কমেছে, আমাদের দেশেও এবার কমবে। কিন্তু মানুষের স্বস্তি নেই।’
তিনি বলেন, ‘এই দাম বৃদ্ধির ফলে নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত ও স্বল্প আয়ের মানুষের সমস্যা আরো বাড়বে। আবার বলা হচ্ছে, জ্বালানির দাম আরো বাড়ানো হবে কিন্তু কেন, আমরা সরকারের কাছে জানতে চাই?’
রওশন এরশাদ আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দাম নির্ধারণ অথবা আগের দামে ফিরে যাওয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান। এরপর তার নেতৃত্বে ওয়াকআউট করেন জাতীয় পার্টির এমপিরা।
এ সময় আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, ‘আপনারা প্রশ্ন-উত্তর না শুনে ওয়াকআউট করলেন কেন?’

You Might Also Like