গুজরাটে সহিংসতায় নিহত ৮

গুজরাটে কারফিউ জারির পর আহমেদাবাদের রাস্তায় রাস্তায় সেনা টহল চলছে।

ভারতের গুজরাটে শিক্ষা ক্ষেত্র ও সরকারি চাকরিতে আরো সুযোগ নিশ্চিত করার দাবিতে প্যাটেল সম্প্রদায়ের বিক্ষোভ-সহিংসতায় এ পর্যন্ত আটজন নিহত হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে একজন পুলিশ ও একই পরিবারের পিতাও পুত্র রয়েছেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে সেখানে কারফিউ জারি করা হয়েছে।

বিবিসি ও এনডিটিভি জানায়,এই পরিস্থিতিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তার নিজ রাজ্যের বিক্ষুব্ধ জনগণকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘সহিংসতা কখনোই মঙ্গলজনক নয়।’

মঙ্গলবার রাজ্যের প্যাটেল সম্প্রদায়ের কয়েক লাখ মানুষ আহমেদাবাদে বিক্ষোভে জড়ো হলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে সরকারি সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় । ৪০টি পুলিশ স্টেশনে আগুন দেয়া হয়। অন্তত পক্ষে ৭০ টি বাস জ্বালিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা।

এরপরই পরিস্থিতি সামাল দিতে বুধবার সেখানে আধাসামরিক বাহিনী মোতায়েন করে কারফিউ জারি করেছে ভারত কর্তৃপক্ষ।

মোদী আরো বলেন, “আমরা সংঘর্ষ ঠেকাতে কারফিউ জারি করেছি। ওদিকে, বিক্ষোভকারীদের ডাকে গুজরাটে বুধবার সকাল থেকে অবরোধ চলছে। এতে গুজরাটের মূল শহর আহমেদাবাদ কার্যত অচল হয়ে পড়ে।

বিক্ষুদ্ধরা রাস্তায় আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ জানায়। এ বিক্ষোভ কর্মসূচির নেতৃত্ব দিচ্ছেন ২২ বছর বয়সী নেতা হারদিক প্যাটেল।

You Might Also Like