চুয়াডাঙ্গায় ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে আটক প্রকৌশলী

চুয়াডাঙ্গা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের সহকারী প্রকৌশলী মাহমুদ আলমকে ঘুষ লেনদেনের সময় হাতেনাতে আটক করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন

হওয়া চুয়াডাঙ্গা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের সহকারী প্রকৌশলী মাহমুদ আলমের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় এ মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। দুদকের উপ-পরিচালক আব্দুল গাফ্ফার বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেনে।

দুদক কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, বুধবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে ঘুষ লেনদেনের সময় চুয়াডাঙ্গা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের সহকারী প্রকৌশলী মাহমুদ আলমকে আটক করা হয়। স্থানীয় এক ঠিকাদারের বিলের পরিপ্রেক্ষিতে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন ওই প্রকৌশলী। বিষয়টি জানতে পেরে দুদক ফাঁদ পেতে হাতেনাতে ঘুষের ৫০ হাজার টাকাসহ তাকে আটক করে।

তিনি আরও জানান, কমিশনের কুষ্টিয়া সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আব্দুল গাফ্ফারের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি টিম অভিযান চালিয়ে তাকে টাকাসহ গ্রেফতার করে।

পরবর্তী সময়ে সন্ধ্যায় ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে জনস্বাস্থ্য সহকারী প্রকৌশলী মাহমুদ আলমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

You Might Also Like