প্রেমিকের লিঙ্গ কর্তন

রাজধানীর নিকুঞ্জর একটি ভবনের সিকিউরিটি গার্ডের চাকুরি করেন মো: দুলাল মিয়া (৩৭)। দীর্ঘদিন ধরে ওই ভবনের একজন গৃহপরিচারিকার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। এক পর্যায়ে ওই গৃহপরিচারিকাকে বিয়ের কথা বলে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থপন করে দুলাল। দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকে তাদের এই অবৈধ সম্পর্ক। সম্প্রতি গৃহপরিচারিকা বিয়ের জন্য দুলালকে চাপ দিলে দুলাল বিয়ে করতে গড়িমশি শুরু করে। এক পর্যায়ে বিয়ে করবে না বলে জানিয়ে দেয় দুলাল। এতে ক্ষেপে যান ওই গৃহপরিচারিকা। অবশেষে মঙ্গলবার বিকেলে ধারালো ব্লেড দিয়ে দুলালের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে। আহত দুলালকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে দুলাল জানান, খিলক্ষেত থানাধীন নিকুঞ্জ-২ এর রোড-১৭, ভবন ৪ এ সিকিউরিটি গার্ডের চাকুরি করেন দুলাল। ওই ভবনের একটি বাসায় কাজ করেন লতিফা আক্তার (২৪) নামে একজন গৃহপরিচারিকা। দীর্ঘদিন ধরে এই দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই সম্পর্ক শারীরিক সম্পর্ক পর্যন্ত গড়ায়। দুলাল জানান, প্রথমে তিনি লতিফাকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার আচার ব্যবহার দেখে তিনি বিয়ের সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে আসেন। এতে ক্ষিপ্ত হয় লতিফা।

মঙ্গলবার বিকেলে দুলাল তার রুমে ঘুমিয়ে ছিলেন। এসময় লতিফা তার রুমে ঢুকে ধারালো ব্লেড দিয়ে তার পুরুষাঙ্গে পোচ দেয়। এসময় তিনি চিৎকার দিলে লতিফা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুলালকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে ওই ভবনের একটি সুত্র জানায়, বিয়ে না করায় লতিফা দুলালের উপর প্রতিশোধ নিতে অপেক্ষা করছিলো। মঙ্গলবার দুলাল লতিফার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করতে গেলে লতিফা কৌশলে দুলালের পুরুষাঙ্গে পোচ দেয়। হাসপাতাল সুত্র জানায়, দুলালের পুরুষাঙ্গের বেশির ভাগ অংশ কেটে গেছে। সমান্য একটু অংশ ঝুলে থাকার কারনে সেটি শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়নি।

এব্যপারে জানতে চাইলে খিলক্ষেত থানার ওসি জানান, থানায় এখন পর্যন্ত এ ধরনের কোন অভিযোগ আসেনি। তবে ঘটনাটি খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে।

You Might Also Like