মন্ত্রী-এমপিদের মোবাইল নম্বর থেকে চাঁদা চাওয়া হচ্ছে: আমু

মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে চাঁদা দাবি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

আজ রোববার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত্র মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকের পর এ কথা জানান শিল্পমন্ত্রী।

তিনি আরও জানান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় বা সরকারি অফিসের ফোন নম্বর ব্যবহার করেও এ ধরনের প্রতারণা চলছে। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে এ প্রতারণা রুখতে আজকের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলেও উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

বৈঠকের পর আমু বলেন, ‘এ প্রতারণা ধরা ও বন্ধ করার জন্য তৎপরতা চালাতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সবার প্রতি নির্দেশ, এ ধরনের ফোন যদি সরকারি কর্মকর্তা, মন্ত্রী বা এমপির ফোন থেকে যায় তাহলে যাচাই করে ব্যবস্থা নেবেন। এটি যাচাই করা কঠিন তাই সরাসরি যোগাযোগ করে আলাপের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এটাই আমাদের অনুরোধ।’

শিল্পমন্ত্রী জানান, সরকারিভাবে এ বিষয়ে পত্র-পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি হবে। যাতে এ ধরনের কোনো কর্মকা- পরিচালিত হতে না পারে।

এর আগে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সভাপতিত্বে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত্র মন্ত্রিসভা কমিটর বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু উপস্থিত ছিলেন।

You Might Also Like