ভারতে হিজড়াদের স্বীকৃতি দিলো সুপ্রিম কোর্ট

অবশেষে হিজড়াদের তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে স্বীকৃতি দিলো ভারত। দেশটির সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট মঙ্গলবার এক ঐতিহাসিক রায়ে এ কথা জানিয়েছে। সর্বোচ্চ আদালতের এই রায়ের ফলে হিজড়ারা চাকরির  কোটা থেকে শুরু করে ভোটার কার্ড, পাসপোর্ট ও ড্রাইভিং লাইসেন্সের সুবিধা পাবেন। আদালত বলেছে, হিজড়াদের স্বীকৃতি দেয়ার বিষয়টি সামাজিক কিংবা চিকিৎসাগত নয়, এটি মানবাধিকারের সঙ্গে সম্পর্কিত। শিক্ষা ও চাকরির ক্ষেত্রে তাদেরকে সমান সুযোগ দেয়ার কথা বলেছে আদালত। এছাড়া, সমাজে তাদের  হেনস্তা রুখতে কড়া ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। হিজড়াদের বৈষম্য নিয়ে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে জনসচেতনতা বাড়ানোর কথাও জানিয়েছে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। আদালতের মতে, জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সংবিধান প্রতিটি নাগরিককে সমান সুযোগ দিয়েছে। ২০১২ সালে হিজড়াদের অধিকার নিয়ে কাজ করা লক্ষ্মীনারায়ণ ত্রিপাঠীসহ কয়েকজন মিলে হিজড়াদের আইনের আওতায় মূল জনসংখ্যায় নিয়ে আসার জন্য মামলা করেছিলেন। আদালতের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন লক্ষ্মীনারায়ণ। এদিকে সাবেক নির্বাচন কমিশনার এস ওয়াই কোরেশি বলেছেন, নারী-পুরুষের বাইরে হিজড়াদের কমিশন যখন আরেকটি লিঙ্গ বলে স্বীকৃতি দিয়েছে তখন ১০ লাখ মানুষের ক্ষমতায়ন হয়েছে। ২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো নির্বাচন কমিশন হিজড়াদের জন্য ভোটার কার্ড ইস্যু করে নির্বাচনের অধিকার দেয়।

You Might Also Like