নিউইয়র্কে নচিকেতা-সোলস কনসার্ট ৩০ আগস্ট

দুই বাংলার জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নচিকেতা এবং সোলস ব্যান্ডকে নিয়ে মিউজিক্যাল নাইটের আয়োজন করা হয়েছে নিউইয়র্কে। আগামী ৩০ আগস্ট রবিবার নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় ইয়র্ক কলেজে অডিটরিয়ামে কনসার্টটি অনুষ্ঠিত হবে।

কনসার্টটির আয়োজক নর্থ আমেরিকার প্রথম ও সর্ববৃহৎ বাংলাদেশি ক্যাবল অপারেটর টোটাল ক্যাবল ও দেশি মিউজিক এন্টারটেইনমেন্ট। কনসার্টের টাইটেল স্পন্সর সিতারা বুটিকস ও গ্র্যান্ড স্পন্সর বিশিষ্ট রিয়েল এসেস্ট ইনভেস্টর মো. আনোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার নিউইয়র্কে বাংলা ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল টিবিএন২৪।

নচিকেতা-সোলস মিউজিক্যাল নাইট নিয়ে স্থানীয় সময় রবিবার জ্যাকসন হাইটসের বাংলাদেশ প্লাজা মিলনায়তনে মিট দ্য প্রেসের আয়োজন করে টোটাল ক্যাবল ও দেশি মিউজিক। এতে বক্তব্য দেন টোটল ক্যাবলের সিইও আহমদুল বারভূইয়া পুলক, চিফ টেকনিক্যাল অফিসার (সিটিও) হাবিব রহমান, দেশি মিউজিক এন্টারটেইনমেন্টের প্রেসিডেন্ট জামান মনির ও সিতারা বুটিকসের স্বত্ত্বাধিকারী টিটু হুদা। সঞ্চালনা করেন টোটাল ক্যাবল ও টিবিএন২৪-এর কনসালট্যান্ট হাসানুজ্জামান সাকী।

আহমদুল বারভূইয়া পুলক বলেন, টোটাল ক্যাবলের লক্ষ্যই হলো বিশ্ব দরবারে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরা। যেখানেই বাংলা, বাঙালি আর বাংলাদেশিদের অবস্থান সেখানেই আমরা তাদের পাশে থাকতে চাই। এই মিউজিক্যাল নাইট আয়োজনের উদ্দেশ্যও তাই। আগামীতে নর্থ আমেরিকাসহ সারা বিশ্বে বাংলাকে তুলে ধরার আরো বেশ কিছু আয়োজনের প্রস্তুতির কথা জানান তিনি।

হাবিব রহমান বলেন, এক সময় টেলিভিশন দেখার জন্য ১৫০ ডলার ব্যয় করতে হতো। এখন আমরা ২০ থেকে ৩০ ডলারের মধ্যে টিভি চ্যানেল দেখার ব্যবস্থা করছি। সেই সাথে বাংলাদেশি ও ভারতীয় এমন অনেক জনপ্রিয় চ্যানেল আছে যা কেবল আমাদের চ্যানেলেই রয়েছে। আমরাই সবগুলো চ্যানেলের সঙ্গে যথাযথ প্রক্রিয়ায় অনুসরণ করে দর্শকদের চ্যানেলগুলো দেখাচ্ছি। বলতে দ্বিধা নেই শতকরা ৯৫ ভাগ টোটাল ক্যাবলের গ্রাহক বাংলাদেশ ও ভারতের বাঙালি। কারণ আমরা বাংলাদেশ ও বাংলাকেই সবার উপরে রেখেছি।

জামান মনির দেশি মিউজিকের সাথে যৌথ আয়োজক হওয়ায় টোটাল ক্যাবলকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, নচিকেতাকে নিয়ে নিউইয়র্কের বাইরে আরো আটটি কনসার্ট আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। কেননা, যুক্তরাষ্ট্রের যেকোনো প্রান্তে বসবাসকারী বাংলা গানের শ্রোতারা নচিকেতার গান উপভোগ করা থেকে বঞ্চিত হতে চাচ্ছেন না। নিউইয়র্ক ছাড়াও নিউজার্সির আটলান্টিক সিটি, ফ্লোরিডার ওরল্যান্ডো ও মায়ামি, ক্যালিফোর্নিয়ার লসঅ্যাঞ্জেলেস ও স্যান্দিয়াগো, পেনসিলভেনিয়ার ফিলাডেলফিয়া, জর্জিয়ার আটলান্টা এবং টেক্সাসের ডালাসে নচিকেতা মিউজিক্যাল নাইটের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

জামান মনির আরো জানান, নিউইয়র্কের নচিকেতা-সোলস মিউজিক্যাল নাইটটির প্রায় সব প্রস্তুতিই শেষ। নিউইয়র্কের আয়োজনটি সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে বড় কনসার্ট হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, সোমবার থেকেই টিকিট বিক্রি শুরু হচ্ছে। তিন ক্যাটাগরিতে টিকেটের মূল্য ১০০, ৫০ এবং ৩০ ডলার। তবে টোটাল ক্যাবলের গ্রাহক হলে শতকরা ২০ থেকে ৩০ ভাগ ছাড় পাবেন ক্রেতারা। তাছাড়া নিউইয়র্কের বাংলাদেশি অধ্যুষিত বিভিন্ন এলাকার গ্রোসারি ও স্টোরগুলোতেও টিকিট পাওয়া যাবে।

You Might Also Like