দামুড়হুদায় কিশোরী ধর্ষণ : ২দিন পরে থানায় মামলা

চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদা উপজেলার বাস্তবপুরে ঘরের ভেতর আটক করে এক কিশোরী (১৪) কে জোর পূর্বক ধর্ষণ করেছে লম্পট মামুন। ধর্ষিতার পরিবারের সদস্যরা গ্রাম্য মাতবরদের কাছে বিচার চেয়ে বিচার না পেয়ে অবশেষে ৫২ ঘন্টা পর বৃহস্পতিবার রাতে দামুড়হুদা থানায় মামলা দায়ের করেছে।

পুলিশ জানায়,  গত মঙ্গলবার বিকাল ৬টার দিকে উপজেলার বাস্তবপুর গ্রামে রহমতুল্লার ছেলে মামুন (৩০) প্রতিবেশী কিশোরীকে একা পেয়ে মুখ চেপে ধরে পরিবারের সদস্যদের অনুপস্থিতিতে নিজ ঘরে আটক করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষিতার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। এর পরে ধর্ষিতার পরিবারের সদস্যরা গ্রাম্য মাতবরদের কাছে ঘটনাটি জানায় এবং বিচারের দাবি করে। বিচার না পেয়ে অবশেষে বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় ধর্ষিতার মা পারভীনা খাতুন মামুনের নাম উল্লেখ করে দামুড়হুদা থানায় মামলা করে।

দামুড়হুদা থানার ওসি কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার দুপুরে ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পূর্ণ করা হবে। তবে মামলা হওয়ার পরে থেকে ধর্ষককে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

You Might Also Like