ডাকাতদের নৃশংসতা: গৃহকর্তার পুরুষাঙ্গচ্ছেদ

মংলা পোর্ট পৌরসভার অবসর প্রাপ্ত কর নির্ধারক (ট্যাক্স কালেক্টর) শুধাংশু সরকারের (৬০) বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় ডাকাত দল গৃহকর্তা শুধাংশুকে কুঁপিয়ে মারাত্মক জখম করে। তার গোপনাঙ্গ কেটে নেয়। মূমুর্ষ অবস্থায় শুধাংশুকে খুলনা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

মংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ বেলায়েত হোসেন জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে ৭/৮ জনের একটি ডাকাতদল শহরের জিয়া সড়কের বাসিন্দা শুধাংশুর বাড়িতে ঢুকে। ঘরে ঢুকে গৃহকর্তা শুধাংশুকে একটি কক্ষের মধ্যে ফেলে এলোপাথারি কুঁপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ সময় ডাকাতরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে শুধাংশুর গোপন অঙ্গ কেটে নিয়ে যায়। ঘটনার সময় শুধাংশুর স্ত্রী ও বৃদ্ধ মা ছাড়া অন্য কেউ বাড়িতে ছিলেন না। ডাকাতরা রাত সাড়ে ১১টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত ওই বাড়িীতে অবস্থান করছিল।

তবে ডাকাতরা মাত্র ৪শ টাকা ছাড়া আর কোন কিছুই নেয়নি বলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ বেলায়েত হোসেন জানান।

তিনি আরো বলেন, এটি ডাকাতি না শত্রুতা তা তদন্তে বেরিয়ে আসবে। তবে ঘটনাটি পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন পুলিশ ও এলাকাবাসী।

এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে তার পরিবারের লোকজন। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে পুলিশের তৎপরতা শুরু হয়েছে।

You Might Also Like