‘ভারতে জরুরি অবস্থা আসতে পারে’

ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সিনিয়র নেতা এল কে আদভানি বলেছেন, ভারত ফের জরুরি অবস্থায় ফিরতে পারে। দেশটির দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে আদভানি এ কথা বলেন।

গতকাল টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইনে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সাক্ষাত্কারে আদভানি বলেন, আমি বলছি না যে রাজনৈতিক নেতৃত্ব পরিপক্ব নয়। কিন্তু আমি আস্থা পাচ্ছি না। হয়তো আবার জরুরি অবস্থা আসতে পারে। তিনি বলেন, জরুরি অবস্থা ফের ফিরে আসবে না সরকার এমন কোনো চিহ্ন দেখাতে পারছে না। ‘নাগরিক সমাজ, জনসাধারণের অধিকার অক্ষুণ্ন থাকবে, তেমন আশ্বাস পাচ্ছি না।? একেবারেই না। সুতরাং জরুরি অবস্থার প্রত্যাবর্তন হবে না, মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন হবে না, এমন কথা জোর দিয়ে বলা যায় না।?’

মোদী সরকারের প্রতি অনাস্থা প্রকাশ করে বর্ষীয়ান এই নেতা জানিয়েছেন, গণতন্ত্র রক্ষায় যা প্রয়োজন, তাতে ফাঁকি থেকে যাচ্ছে।’ আদভানি ১৯৭৫ সালের সেই জরুরি অবস্থার কথা স্মরণ করে বলেন, তখন সংবিধানে যথেষ্ট থাকলেও এসেছিল। ২০১৫ সালে সেটা খুব বেশি নেই।
আদভানির সাক্ষাত্কার এমন সময়ে প্রকাশিত হলো যখন সরকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে নিয়ে অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে আছে। আদভানির সাক্ষাত্কার সম্পর্কে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী এবং আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছেন, আদভানি ঠিকই বলেছেন। জরুরি অবস্থার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না। দিল্লিই হতে পারে প্রথম অভিজ্ঞতা।

You Might Also Like