চীন – ভারত মহাসাগরে নিখোঁজ বিমানের টুকরো?

মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ একটু আগে ঘোষণা করেছে চীন – ভারত মহাসাগরে ভাসমান এমন কিছু বস্তুর উপগ্রহ চিত্র পেয়েছে যা নিখোঁজ বোয়িং ৭৭৭ বিমানটির টুকরো হতে পারে।

মালয়েশিয়া সরকারের একজন মন্ত্রী হিশামউদ্দিন হোসেন বলছেন, ওই নতুন উপগ্রহ চিত্রে যে বস্তুগুলো দেখা যাচ্ছে – তা প্রায় ২২ মিটার দীর্ঘ এবং ১৩ মিটার চওড়া।

চীন সরকার এখন উপগ্রহচিত্রগুলো পরীক্ষা করে দেখছে, এবং সেখানে একটি জাহাজ পাঠানোর হচ্ছে বলে তিনি জানান।

ভারত মহাসাগরের দক্ষিণ দিকে একটি জায়গায় ওই বস্তুটি খুঁজে পাওয়া গেছে বলে বলা হয়। ছবিগুলো তোলা হয়েছে চীনের গাওফেন-ওয়ান নামের ভূ-পর্যবেক্ষণ উপগ্রহ থেকে।

বলা হচ্ছে, এটি দু সপ্তাহ আগে ২৩৯ জন যাত্রী নিয়ে নিখোঁজ হওয়া মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ বিমানটির টুকরো হতে পারে।

এর কয়েকদিন আগে প্রকাশ করা উপগ্রহ চিত্রে অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিম উপকুলের পার্থ শহর থেকে প্রায় ১৩শ মাইল দক্ষিণ-পশ্চিমে দুটি বস্তু সাগরে ভাসতে দেখা যায়।

উপগ্রহ চিত্রে এখানে কিছু ভাসতে দেখা গেছে

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী টনি এ্যাবট একে ‘নিখোঁজ বিমানটির ভাগ্যে কি ঘটেছে তার প্রথম বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ’ বলে অভিহিত করেন।

এর পর দক্ষিণ ভারত মহাসাগর এলাকায় আন্তর্জাতিক অনুসন্ধান কার্যক্রম জোরদার করা হয়।

আজ প্রকাশ করা নতুন উপগ্রহ চিত্রগুলো তোলা হয়েছে আগেকার জায়গাটি থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরে।

দীর্ঘ সময় ধরে উড়তে পারে এমন বিমান এই অনুসন্ধানে যোগ দেয়।

এতে আরো কাজ করছে অস্ট্রেলিয়ান নৌবাহিনীর নৌযান, এবং কিছু বাণিজ্যিক জাহাজ।

অস্ট্রেলিয়ান একজন বৈমানিক বলেছেন, মেঘ এবং কুয়াশার জন্য সাগরের দুর্গম ওই এলাকাটির পরিস্থিতি অনুসন্ধানের খুব অনুকুল নয়।

You Might Also Like