জামায়াত-শিবিরের হাতে ‘পরকালের পাসপোর্ট’

মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের আপিল মামলার রায় আগামী ১৬ জুন। এ রায় কেন্দ্র করে দেশব্যাপী নাশকতার ছক কষছিলো জামায়াত-শিবির। বেহেশতে যেতে নতুনভাবে তারা বিতরণ শুরু করেছে ‘পরকালের পাসপোর্ট’।
শুক্রবার (১২ জুন) বেলা সাড়ে ১১টায় গাজীপুর পুলিশ সুপার কার্যালয় প্রাঙ্গণে এক সাংবাদিক সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার মো. হারুনর রশীদ এসব তথ্য জানান।
সম্মেলনে বলা হয়, ১৬ জুন জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের যুদ্ধাপরাধ মামলার আপিলের রায় হবে। ওই রায় কেন্দ্র করে দেশব্যাপী নাশকতার পরিকল্পনা করতে বৃহস্পতিবার (১১ জুন) রাতে গাজীপুর শহরের ইউরো বাংলা চাইনিজ রেস্টুরেন্টে গোপন বৈঠক করছিলেন জামায়াত-শিবিরকর্মীরা।
বৈঠকে অভিযান চালিয়ে ৩৫ জনকে আটক করা হয়। এদের বাড়ি দেশের ১৯ জেলায়। নাশকতার পরিকল্পনা করতে তারা একত্রিত হন বলে জানান পুলিশ সুপার।
সম্মেলনে আরও বলা হয়, আটকদের দেওয়া তথ্যমতে, জামায়াতের লাইব্রেরি থেকে বিপুল সংখ্যক জিহাদি বই ও ২০টি পেট্রোলবোমা উদ্ধার করা হয়েছে। ইসলামী বিভিন্ন ধরনের বইয়ের সঙ্গে পাওয়া গেছে কয়েকটি পাসপোর্ট। পাসপোর্টের উপরে লেখা ‘পরকালের পাসপোর্ট’।
আরও জানানো হয়, সারা দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির মাধ্যমে সরকারকে ক্ষমাতুচ্যত করতে সরকারবিরোধী লোক সংগ্রহের কৌশল হিসেবে জামায়াত-শিবির বেহেশতের পাসপোর্ট বিতরণ করছে। একই সঙ্গে উদ্ধার হয়েছে রশিদ দিয়ে চাঁদা আদায়ের অসংখ্য আলামত।
আটক ৩৫ জামায়াত-শিবিরকর্মীর মধ্যে গাজীপুর মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল মো. খায়রুল হাসান (৩৭) ও মহানগরের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড জামায়াতের সভাপতি মো. সাদেকুজ্জামান (৩৫) অন্যতম।

You Might Also Like