সানির স্বামী আমাকে হুমকি দিচ্ছে: সেলিনা

ভারতীয় অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি দাবী করছেন, সানি লিওনিকে বাড়ি ভাড়া দিয়ে ভীষণ দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে তাকে। বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার পরও সানির স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবার তাকে নানা ভাবে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে যাচ্ছেন বলেও দাবী করেন সেলিনা।
আড়াই বছরের ইজারা শেষ হবার পর সেলিনা জেটলির অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে দিয়েছেন সানি লিওনি। বলিউড হাঙ্গামাকে সেলিনা বলেন, সানি লিওনি আর তার স্বামী আমার ফ্ল্যাট ছেড়ে যেতে রাজি হননি বলে আমাকে দুই ছেলে নিয়ে আড়াই বছর ধরে এক হোটেলে থাকতে হয়েছে। তাদের ইজারার মেয়াদ শেষ হলে আমি গিয়ে দেখি, আমার সুন্দর ফ্ল্যাটটি পুরো ধ্বংস করে দিয়েছেন তারা।
আমার ফ্ল্যাটে রাখা যাবতীয় শৌখিন আসবাবপত্রগুলো বারান্দায় রেখে নষ্ট করেছেন সানি। এমনকি রেফ্রিজারেটর এবং ওয়াশিং মেশিনও অকেজো অবস্থায় পেয়েছি আমি। স্বীকার করতে বাধ্য হচ্ছি, সানি লিওনি এবং তার স্বামী অনেক নোংরাভাবে জীবনযাপন করেন।
সাবেক এই পর্ন তারকা জুটিকে ‘অকৃতজ্ঞ’ বলে অভিহিত করেন সেলিনা। জানান, ২০১২ সালে যখন প্রথম ভারতে এসেছিলেন সানি, তখন কেউ তাকে বাড়ি ভাড়া দিতে রাজি হননি।
“যখন কেউ তাদের ঘর ভাড়া দিতে রাজি হননি, তখন আমি তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেই। এখন আমি নিজেই অনুশোচনায় ভুগছি।
এছাড়া সেলিনা জানান, সানির স্বামী ড্যানিয়েল তার স্বামীকে একাধিকবার অকথ্য ভাষায় ই-মেইল পাঠিয়েছেন।
সেলিনা বলেন, “ড্যানিয়েল প্রচণ্ড জেদি এবং রুক্ষ প্রকৃতির একজন ব্যক্তি। তিনি আমার স্বামীকে বেশ কয়েকটি খারাপ ভাষার ই-মেইল পাঠিয়েছেন। আসলে সানি এবং তার স্বামীর উপর এখন বিনোদন জগতের সবাই বিরক্ত। তাদের কাজকর্ম কেউই ভালো চোখে দেখছেন না।
অবশ্য সেলিনার অভিযোগগুলোকে সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন ড্যানিয়েল। তিনি বলেন, এ ধরনের মিথ্যা অভিযোগের বিপরীতে আমি কোনো মন্তব্য করতে রাজি নই। আমি শুধু বলতে চাই, আমরা দুজন এখন কাজ নিয়ে অনেক ব্যস্ত, অন্যদিকে তাকানোর সময় নেই আমাদের।
ভারতীয় রিয়ালিটি শো ‘বিগ বস’-এ অংশ নিয়ে হিন্দি বিনোদন জগতে প্রবেশ করেন সানি। ২০১২ সালে প্রথম মুক্তি পায় তার প্রথম সিনেমা ‘জিসম টু’। এর আগ পর্যন্ত কানাডায় পর্নগ্রাফিক চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি।

You Might Also Like