এনপিটিতে সই করবে না পাকিস্তান: পররাষ্ট্র সচিব

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব এজাজ আহমদ চৌধুরী জানিয়েছেন, তার দেশ পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি বা এনপিটিতে সই করবে না। বৈষম্যমূলক হওয়ায় পাকিস্তান এ চুক্তিতে সই করবে না বলে তিনি জানান।

এজাজ আহমদের বরাত দিয়ে পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডন এ খবর দিয়েছে। এজাজ চৌধুরী বলেছেন, “এটি একটি বৈষম্যমূলক চুক্তি। পাকিস্তানের আত্মরক্ষার অধিকার আছে, সে কারণে পাকিস্তান এনপিটিতে সই করবে না।” তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, “কেন আমরা এ চুক্তিতে সই করব?”

বিশ্বের বহু দেশ ও সামরিক পর্যবেক্ষক মনে করেন, প্রতিবেশি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে অস্ত্র প্রতিযোগিতা রয়েছে। এছাড়া, দু দেশের হাতেই রয়েছে পরমাণু বোমা।

এ প্রসঙ্গে এজাজ চৌধুরী বলেন, পাকিস্তান ন্যুনতম প্রতিরোধ করার ব্যবস্থা রাখবে তবে কারো সঙ্গে অস্ত্র প্রতিযোগিতায় নামবে না। তিনি জোর দিয়ে বলেন, পাকিস্তান সামগ্রিকভাবে কৌশলগত স্থিতিশীলতায় বিশ্বাস করে। ‌এর মধ্যে প্রচলিত অস্ত্র, পরমাণু অস্ত্র এবং অন্যান্য বিরোধের নিষ্পত্তির বিষয়ও পড়ে বলে পাক পররাষ্ট্র সচিব উল্লেখ করেন।

চৌধুরী এজাজ বলেন, পাকিস্তান এরইমধ্যে প্রমাণ করেছে, তার পরমাণু সম্পদ সম্পূর্ণ নিরাপদ এবং পরমাণু স্থাপনাগুলো কখনো সন্ত্রাসীদের হাতে পড়বে না। এ বিষয়ে তার দেশ যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে অন্যরা তা করে নি এবং পাকিস্তানের এ পদক্ষেপের কথা অন্যান্য দেশও স্বীকার করে বলে তিনি দাবি করেন। এজাজ আহমদ বলেন, পরমাণু অস্ত্র রক্ষায় পাকিস্তান তার দায়িত্ব পালন করেছে।

শুরু থেকেই দুই প্রতিবেশি পাকিস্তান ও ভারত পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি বা এনপিটিতে সই করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে। পাকিস্তান সবসময় বলছে, ভারত এ চুক্তিতে সই না করলে তারাও করবে না।

এনপিটিতে সই করা দেশগুলো পরমাণু অস্ত্র তৈরি কিংবা পরীক্ষা চালাতে পারে না। তবে, বিশ্বের প্রধান সামরিক শক্তিধর দেশগুলো ঠিকই পরমাণু অস্ত্রের মজুদ গড়ে তুলেছে এবং তারা মাঝেমধ্যেই নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে আসছে।

You Might Also Like