ইলিশ চায় পশ্চিমবঙ্গ

আগামী বর্ষায় বাংলাদেশের পদ্মার ইলিশ পেতে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন পশ্চিমবঙ্গের ব্যবসায়ীরা। চলতি সপ্তাহে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এ বিষয়ক জটিলতা কেটে যাবে বলে আশা করছেন ইলিশ আমদানিকারকরা।
সরকারপ্রধানদের আলোচ্যসূচিতে যাতে বাংলাদেশ থেকে ইলিশ রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি থাকে, সে জন্য এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ মৎস্য আমদানিকারকদের সংগঠনের পক্ষ থেকে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও পশ্চিমবঙ্গের মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মৎস্য দপ্তরও এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে একাধিক চিঠি পাঠিয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০১২ সাল থেকে পশ্চিমবঙ্গে ইলিশের রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বাংলাদেশ সরকার।
পশ্চিমবঙ্গের ফিশ ইম্পোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অতুলচন্দ্র দাস বলেন, ‘আমরা ইলিশের বিষয় নিয়ে বাংলাদেশের মৎস্য ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেছি। আমাদের বাংলাদেশের বরিশাল ফিশ এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অজিতকুমার দাস জানিয়েছেন, তাঁরা ভারতে ইলিশ রফতানি করতে খুবই আগ্রহী। এমনকি তাঁরা বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেছেন। বাংলাদেশের বাণিজ্য দপ্তরকে চিঠিও দিয়েছেন তাঁরা। আমাদের এক প্রতিনিধিদলকে বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ওনারা। শিগগিরই আমরা সে সফর চূড়ান্ত করব।’
অতুলচন্দ্র বলেন, ‘আমরা আশা করছি, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর অবস্থান পরিবর্তন করে এবারের মোদি-মমতার সঙ্গে বৈঠকে ইলিশ এজেন্ডাকে রেখে ইলিশ রফতানির ক্ষেত্রে ছাড়পত্র দেবেন। আমরা সেই আশায় বুক বেঁধে রয়েছি।’
পশ্চিমবঙ্গের মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ বলেন, ‘বাংলাদেশ ইলিশ রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় ইলিশ আসছে না রাজ্যে। বিষয়টি দুই দেশের আলোচনার ব্যাপার। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত ফেব্র“য়ারিতে ঢাকা সফরে গিয়ে ইলিশের রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা তোলার জন্য হাসিনা সরকারের কাছে আবেদন জানিয়ে এসেছিলেন। এবার স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর সফরে ইলিশ নিয়ে আলোচনা হলে ভালোই হবে। আমরা চাইছি, আগামী বর্ষার মৌসুমে বাংলাদেশের পদ্মার ইলিশ আসুক পশ্চিমবঙ্গে।’

You Might Also Like