কুমিল্লায় গৃহবধূকে গণধর্ষণ

জেলার হোমনায় এক গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। গত রোববার উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের পাথালিয়া কান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এরপর সোমবার ওই গৃহবধূ নিজে বাদী হয়ে চারজনের নামে থানায় মামলা করেছেন। তিনি ওই গ্রামের দরিদ্র আসাদ মিয়ার স্ত্রী।

এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা গেছে, পাথালিয়া কান্দি গ্রামের ওই গৃহবধূ সন্তান নিয়ে ঘরের মধ্যে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত আনুমানিক ১০টার দিকে একদল যুবক ঘরের দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে।

এরপর ওই গৃহবধূর মুখ চেপে ধরে ঘরের ভিতরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার লুট করে। যাওয়ার আগে দুর্বৃত্তরা হাত-পা বেঁধে একই গ্রামের উত্তর পাড়ার আলমগীর হোসেনের বাগান বাড়ির নির্জনস্থানে নিয়ে যায়।

সেখানে পালাক্রমে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে তারা ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে গৃহবধূর আত্মীয়-স্বজনসহ গ্রামবাসী খোজাখুঁজির পর রাত ২টার দিকে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়।

হোমনা থানার সেকেন্ড অফিসার কাজী নাজমুল হক জানান, ধর্ষণের ঘটনায় হোমনা থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গৃহবধূকে মঙ্গলবার কুমেক হাসপাতালে পাঠানো হবে।

You Might Also Like