গরুর গোশত নিষিদ্ধের প্রতিবাদে ‘জেল ভরো’ আন্দোলনের হুমকি

ভারতের মহারাষ্ট্রে গরুর গোশত নিষিদ্ধের প্রতিবাদে ‘জেল ভরো’ আন্দোলনের হুমকি দিলেন রিপাবলিকান পার্টি অফ ইন্ডিয়া বা আরপিআই নেতা রামদাস আতাউলে।

মঙ্গলবার তিনি এই হুমকি দিয়ে বলেন, ‘আমরা কি খাব, না খাব সে বিষয়ে সাংবিধানিক স্বাধীনতা রয়েছে, এটা আমাদের মৌলিক অধিকার। কোনো সরকার এই অধিকারকে কেড়ে নিতে পারে না।’

রামদাস আতাউলে বলেন, ‘যদি সরকার আমাদের কথা শুনতে রাজি না হয় এবং আমাদের পছন্দমত খাবার খাওয়ার অনুমতি না দেয়া হয়, তাহলে আমরা ‘জেল ভরো’ আন্দোলন শুরু করব।’ খুব শিগগিরি এ নিয়ে প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গেও দেখা করার চেষ্টা করা হবে’ বলেও জানান তিনি।

মহারাষ্ট্রের দলিত নেতা রামদাস আতাউলে বলেন, ‘আমরা বিজেপি সরকারের জোটে রয়েছি বলে তার মানে এই নয় যে, আমরা চোখ বন্ধ করে রাখব এবং সরকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রতি অবিচার করবে। এর ফলে মানুষজন কর্মহীন হয়ে পড়ছে। অন্যদিকে, কৃষকরাও বয়স্ক গবাদি পশু কসাইখানায় বিক্রি করার অনুমতি না পাওয়ায় তারাও অসহায় হয়ে পড়েছে।’

এর আগে গত মার্চে আরপিআই নেতা রামদাস আতাউলে জানিয়েছিলেন, ‘আমরা গাভী জবাই করা নিষিদ্ধ করাকে সমর্থন করি। কিন্তু বাছুর জবাই করা নিষিদ্ধ করার বিরোধীতা করছি আমরা। তাছাড়া গরু জবাই নিষিদ্ধ হওয়ায় কৃষকদের বয়স্ক গবাদি পশুকে প্রতিপালন করতে গিয়ে বড় বোঝা বইতে হবে।’

রামদাস বলেন, ‘গরুর গোশত নিষিদ্ধ হওয়ার পরে খাসির গোশতের দাম অত্যন্ত বেড়ে গেছে। সাধারণ মানুষ এত চড়া দামে খাসির গোশত কিনতে পারছে না।‘

এবার রাজ্যে গরু জবাই বন্ধ ও গরুর গোশত নিষিদ্ধের প্রতিবাদে ‘জেল ভরো’ আন্দোলনের হুমকি দিলেন তিনি।

You Might Also Like