রাজধানীর গুলশান, বারিধারা ও নিকেতনে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে

আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের জন্য সার্বক্ষণিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে রাজধানীর গুলশান, বারিধারা ও নিকেতনে ১০০ সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে বলে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গুলশানের লেকশোর হোটেলে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান। গুলশানের ল এন্ড অর্ডার কো-অর্ডিনেশন কমিটির আয়োজনে অনুষ্ঠানে সিসিটিভি ক্যামেরা নজরদারির প্রকল্পটি উদ্বোধন করা হয়।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, প্রকল্পটির আওতায় নতুনবাজার, গুলশান-১ ও ২, হাতিরঝিল, নিকেতন এবং বারিধারায় মোট ১০০ সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। গুলশান থানা ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যালয় থেকে ক্যামেরার ফুটেজ মনিটরিং করা হবে। গুলশান জোনকে নিরাপত্তার চাঁদরে ঢাকতে সর্বমোট ৭০০ সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হবে। আর ক্যামেরাগুলোর মাধ্যমে সার্বক্ষণিক নজরদারি ছাড়াও ফেস ডিটেকশন, ভিয়াকেল ট্রাকিং, ট্রাফিক কন্ট্রোল, অটোনম্বর প্লেট ডিটেকশন ও ক্রিমিনাল ডিটেকশন করা যাবে।

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) এ কে এম শহীদুল হক বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্য পুলিশ ও জনগণের মধ্যে পার্টনারশিপ বজায় রাখা। প্রকল্পটি একটি যুগান্তকারী ও ঐতিহাসিক উদ্যোগ। এ উদ্যোগের মধ্য দিয়ে গুলশানের বাসিন্দারা অসম্ভবকে সম্ভব করলো বলে মন্তব্য করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক (র‌্যাব, ডিজি) বেনজীর আহমেদ।

জননিরাপত্তায় নেওয়া যে কোনো উদ্যোগের পাশে পুলিশ সবসময় থাকবে বলে আশ্বাস দেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

You Might Also Like