গৃহবধূকে অপহরণের পর গণধর্ষণ, আটক : ৩

লক্ষ্মীপুরের ঝুমুর থেকে অপহরণের পর এক গৃহবধূকে জোর পূর্বক গণধর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা ।

এ ঘটনার প্রায় ২৪ ঘন্টা পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভিকটিমকে দূর্বৃত্তরা ছেড়ে দিলে তার অভিযোগের ভিত্তিতে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ঘটনার সাথে জড়িত সাকিল ভূঁইয়া (২৮), সালাউদ্দিন (২০), দ্বীন মোহাম্মদ (২৫) সহ তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-৩।

এ ঘটনায় রাতেই ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় মামলা করে।

র‌্যাবের কোম্পানী অধিনায়ক ও উপ-পরিচালক মেজর এ. জেড. এম. সাকিব সিদ্দিকী জানান, সোমবার রাত ৮ টার দিকে ভিকটিম লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জের তার পিত্রালয় থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে ঝুমুরের বাসস্ট্যান্ড হতে দূর্বৃত্তরা তাকে জোরপূর্বক তুলে নেয়। এরপর পৌরশহরের বাঞ্চানগর গ্রামের একটি বাড়িতে আটকে রেখে একই গ্রামের বাবু ভূঁইয়ার ছেলে সাকিল ভূঁইয়া (২৮), মৃত তোরাব আলীর ছেলে সালাউদ্দিন (২০), মৃত আবু সিদ্দিকের ছেলে দ্বীন মোহাম্মদ (২৫), সেলিম ভূঁইয়ার ছেলে মনা (২৮) এবং মুজুপুরের বেলাল (৩০) সহ ৫ জনেই রাতভর গৃহবধূকে উপুর্যপুরি ধর্ষণ করে। এরপর পরদিন সন্ধ্যার আগে তাকে ছেড়ে দেয়। এবং ধর্ষিতা গৃহবধূ সোজা গিয়ে লক্ষ্মীপুর স্টেডিয়ামে র‌্যাব ক্যাম্পে গিয়ে লম্পটদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে তাৎক্ষণিক অভিযানে নামে এবং অভিযুক্ত তিনজনকে আটক করে। বাকিরা এখনো পলাতক রয়েছে।

You Might Also Like