পাকিস্তানের আলজাজিরার ব্যুরো চিফ আল-কায়েদার সদস্য!

পাকিস্তানের আলজাজিরার ব্যুরো চিফি আহমাদ মুয়াফফাক জাইদানকে জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার সদস্য হিসেবে চিহ্নিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তার নামও সন্ত্রাসী সন্দেহের কালো তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছে পেন্টাগন।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনএসএ-এর প্রাক্তন চুক্তিভিক্তিক কর্মকর্তা অ্যাডওয়ার্ড স্নোডেনের ফাঁস করা মার্কিন সামরিক দলিলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে বলে শনিবার দেশটির সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্টারসেপ্ট জানিয়েছে। আল-কায়েদাপ্রবণ দেশগুলো থেকে সংগ্রহ করা তথ্যপ্রমাণ বিশ্লেষণ করে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দারা তাকে সন্ত্রাসীর তালিকায় রেখেছে- দাবি সংবাদমাধ্যমটির।

সিরিয়া্র নাগরিক জাইদান আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা ওসামা বিন লাদেনের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন। ইসলামাবাদে তিনি সবচেয়ে বেশি সময় আলজাজিরার ব্যুরো প্রধান হিসেবে কর্মরত আছেন।

খবরে বলা হয়, জাইদান তার ক্যারিয়ারের প্রায় পুরোটা সময় তালেবান ও আল-কায়েদার ওপর প্রতিবেদন করেছেন। তিনি লাদেনসহ আল-কায়েদার শীর্ষ নেতাদের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন।

স্নোডেনের ফাঁস করা নথিগুলোর ভিত্তিতে খবরে আরো বলা হয়, ২০১২ সালে তৈরি করা যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসএ) এক পাওয়ার পয়েন্ট পেজেন্টেশন স্লাইডে দেখা যায় তার ছবি, নাম এবং সন্ত্রাসী চিহ্নিতকরণের একটি লিস্ট। তাকে আল-কায়েদার সদস্য হিসেবে সেখানে আখ্যা দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তিনি মুসলিম ব্রাদারহুডের সদস্য এবং আলজাজিরার হয়ে কাজ করেন বলে সেখানে উল্লেখ রয়েছে।

তবে ইন্টারসেপ্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ওই অভিযোগ ‘সম্পূর্ণরূপে’ মিথ্যা বলেও উড়িয়ে দেন তিনি।

এ খবর প্রকাশিত হওয়ার পর এক বিবৃতিতে সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, জাইদান তার লম্বা ক্যারিয়ারে অনেক বছর ধরেই পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করেছেন। একজন সাধারণ সাংবাদিককের মতো তিনিও ওই অঞ্চলের অন্যতম মানুষের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন। তার ওপর গোয়েন্দা নজরদারি করা সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য।

আলজাজিরার মুখপাত্র জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসী সন্দেহের তালিকায় জাইদানের নাম অন্তর্ভুক্তির খবর কাতার সরকারের কাছ থেকে তিনি পেয়েছেন। তাকে টার্গেট করে তথ্যসংগ্রহ করা, পর্যবেক্ষণ করা সম্পূর্ণরূপে বাকস্বাধীনতার লঙ্ঘন।

তবে গুটি কয়েক ছাড়া প্রভাবশালী মূলধারার সংবাদমাধ্যম এখনো সংবাদটি প্রকাশ করেনি।

তথ্যসূত্র : দ্য ইন্টারসেপ্ট, ডন, টাইমস অব ইন্ডিয়া, আলজাজিরা।

You Might Also Like