ব্যাংকের টাকা লুটের পরিকল্পনাকারী আটক

কিশোরগঞ্জে সোনালী ব্যাংকের টাকা লুটের মূল পরিকল্পনাকারী সোহেলের মামা শ্বশুর সিরাজকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।
শনিবার সকালে কিশোরগঞ্জের ভৈরব রেলস্টেশন থেকে আটক করা হয়। আটককৃত সিরাজকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।
গত ২৬ জানুয়ারি দুপুরে কিশোরগঞ্জের রথখোলা এলাকায় সোনালী ব্যাংক থেকে ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা খোয়া যাওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। পাশের ভবনের বাসিন্দা সোহেল সুড়ঙ্গ খুঁড়ে এই টাকা চুরি করে বলে র‌্যাব-পুলিশ ধারণা করে। ঘটনার পর থেকে সোহেল পলাতক ছিল। ওই ঘটনায় কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগে ৮ পুলিশ সদস্যকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। তার পাশাপাশি ব্যাংকের ব্যবস্থাপকসহ কয়েকজনকে আটক করে পুলিশ।
২৮ জানুয়ারি বিকালে কদমতলীর শ্যামপুর বালুর মাঠের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে কিশোরগঞ্জের রথখোলায় সোনালী ব্যাংক থেকে লুট হওয়া ১৬ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার ৬০০ টাকাসহ ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত হাবিব ওরফে সোহেল রানাকে কমান্ডো স্টাইলে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ সময় সোহেলকে আশ্রয় দেয়ায় তার সহযোগী ইদ্রিসকে আটক করা হয়। ব্যাংক থেকে টাকা লুট করার পর টাকা নিয়ে এসে সে ওই বাসায় অবস্থান করছিল। ২ বছর ধরে সোহেল ব্যাংকে ডাকাতি করার পরিকল্পনা করে। পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ড্রিল মেশিন দিয়ে ব্যাংকে ঢোকার সুড়ঙ্গ পথ তৈরি করা হয়।

You Might Also Like