ভাই-বোনে স্বামী-স্ত্রী

গ্রিক ট্র্যাজেডি ‘ইডিপাস রেক্স’-এর কথা মনে পড়ে গেল। যেখানে বাবাকে মেরে মাকে বিয়ে করেছিলেন কিং ইডিপাস। এ নিয়ে রাজ্যে নেমে এসেছিল ভয়াবহ দুর্যোগ। যার জন্য দেশটির গর্ভবর্তী মায়েরা সন্তান প্রসব করতে পারছিলেন না।

বলে রাখি, কিং ইডিপাসের বাবাকে মারা ও মাকে বিয়ে করার বিষয়টি দুর্ঘটনাবসত হয়েছিল। প্রায় একই ধরনের একটি বাস্তব ঘটনা তুলে ধরছি। তবে সম্পর্কটি আলাদা। এখানে কাউকে খুন হতে হয়নি।

চমকে যাওয়ার মতোই এই ঘটনা। ছোট থেকেই দু’জনেই মা-হারা। আজীবন মা’কে খুঁজে পাওয়াই মূল লক্ষ ছিল আদ্রিয়ানা ও লিয়েন্দ্রার। কিন্তু সেই খোঁজের শেষে যে তাদের জীবন অন্য খাতে বয়ে যাবে তা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি দু’জনেই।

এতদিন আদ্রিয়ানা ও লিয়েন্দ্রা ভাবতেন, তাদের দু’জনের মায়ের নাম বোধহয় কাকতালীয়ভাবে এক। আদ্রিয়ানা তাঁর মা’কে খুঁজতে ব্রাজিলিয়ান রেডিও স্টেশনের ‘অ্যাঞ্জেল অফ মিটিংস’ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। হারিয়ে যাওয়া আপনজনেদের খুঁজতে সাহায্য করে এই অনুষ্ঠান। আর সেখানেই নিজের মা’কে খুঁজে পান আদ্রিয়ানা।

এর পরই তাদের মাঝে ভিতরের(ইনার কনফ্লিকট) দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়। মা’কে বাড়িতে নিয়ে আসে আদ্রিয়ানা। তখন আবিষ্কার হল, তাঁর মা’ই হল তাঁর স্বামীরও মা। চমকে যান আদ্রিয়ানা। ভেঙে পরেন কান্নায়।

গত সাত বছর ধরে দু’জনে বিবাহিত। তাদের ছয় বছরের এক কন্যাসন্তানও রয়েছে। কান্নাকাটি থামিয়ে দু’জনেই আপাতত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তারা দম্পতির মতোই থাকবেন।

You Might Also Like