শুধু বচ্চন বলেই আমাকে বিয়ে করেনি ঐশ্বরিয়া

২০০৭ সালে অভিষেক বচ্চনকে বিয়ে করেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও হলিউডের হাটথ্রুব অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই। নিন্দুকেরা যত যাই বলুন না কেন, ব্যক্তি ও অভিনয়শিল্পী হিসেবে ঐশ্বরিয়ার অর্জন খাতা-কলমে হিসেবে করার মতো নয়।
শুধু ভারতেই নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গণে বহু আগেই মিলেছে ঐশ্বরিয়ার প্রতিভার স্বীকৃতি। সেই হিসেবে ঐশ্বরিয়ার স্বামী অভিষেক কোনো মতেই তার তুলনীয় নন।
ঐশ্বরিয়া বয়স এখন ৪০। যৌবন বয়সে তো বটেই, এখনো ঐশ্বরিয়াকে স্বপ্নের রাজকন্যা ভাবেন এমন মানুষের সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। ঐশ্বরিয়াকে নিয়ে স্বপ্ন দেখা এসব লোকেরা যে অভিষেককে নিয়ে একটু আধটু ঈর্ষান্বিত, এটা বললে একটুও বাড়িয়ে বলা হবে না। অমিতাভ বচ্চনের ছেলে শুধু এই জন্যই নাকি অভিষেককে বিয়ে করেছেন ঐশ্বরিয়া, এমনটা বলতেও ছাড়ছেন না অনেকে।
তবে তা মানতে রাজি নন অভিষেক। তার দাবি, মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের ছেলে কিংবা একজন চলচ্চিত্র তারকা, শুধু এসব গুনের জন্যই তাকে বিয়ে করেননি ঐশ্বরিয়া।
অভিষেক বলেন, “আমি একজন চলচ্চিত্র তারকা কিংবা একজন বচ্চন, শুধু এই কারণে ঐশ্বরিয়া আমাকে বিয়ে করেনি। সে বিশ্বের অন্যতম সেরা তারকা কিংবা পৃথিবীর সেরা সুন্দরী নারী, শুধু এই কারণে আমিও তাকে বিয়ে করিনি। এমন কিছু কখনো আমাদের মনে আসেনি।”
আরাধ্যা নামের এক কন্যা সন্তান আছে এই বলিউড দম্পতির। সূত্র: জি নিউজ।

You Might Also Like