সংবাদ সম্মেলনে আম্পায়ারিং নিয়ে কথা বললেন মাশরাফি

ভারতের সঙ্গে কোয়ার্টার ফাইনালের আম্পায়াররা কী কী করেছে তা নিয়ে খুব বেশি কথা বলতে চাননি টাইগার দলনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ম্যাচ শেষে প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, প্রত্যেকেই দেখেছেন মাঠে কী হয়েছে।

আম্পায়ারিংয়ে যে তামাশা হয়েছে মাঠে, সেটাই বুকে পাথর হয়েছিল মাশরাফির। ম্যাচের পর সাংবাদিকরা জিজ্ঞেস করেছিলেন, “রোহিত যে বলটিতে ক্যাচ তুলেছিলেন, সেটা তো ‘নো’ ছিল না, আম্পায়ারিং নিয়ে কোনো অসন্তুষ্টি আছে কি?”

এই প্রশ্নটা যে টাইগার দলপতির দিকে ধেয়ে আসবে সেটি তিনি আগেই আঁচ করেছিলেন। তার ওপর ম্যাচের আম্পায়ারদের নিয়ে যে খুব বেশি কথাও বলা যাবে না সেই বিষয়টি মাশরাফিও খুব ভালো মতোই জানতেন।

সামনে আইসিসির ক্যামেরা আর ভারতীয় সাংবাদিকে ভরা। সেখানে বসে মাশরাফি নিশ্চয়ই সৌজন্য ভঙ্গ করতে পারেন না। তাই বললেন, ‘এ নিয়ে আমার বলার কিছু নেই। যা হয়েছে তা পুরো বিশ্ব দেখেছে। তারাই জানে, কী হয়েছিল ওই বলটিতে…।’ বলতে গিয়ে গলা ধরে আসছিল তার। বড্ড অসহায় আর নিরবলম্বন লাগছিল বাংলাদেশ অধিনায়ককে।

তবুও মাশরাফি বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে উইকেট নেওয়াই মুখ্য। অন্যথায় আপনার জন্য কাজটা খুব কঠিন হবে। ওই সময়টাতে রোহিত শর্মা আউট হয়ে গেলে খুব ভালো হতো। আপাতত এ নিয়ে আমি কিছু বলতে পারব না। মাঠে কী হয়েছে, সেটা তো আপানারাই অবলোকন করেছেন। এমনিতেই ২০টি রান বেশি হয়েছে। সেটা না হলে ম্যাচের ফল ভিন্নও হতে পারত।’

মাশরাফির এই মন্তব্যে এটাই প্রতীয়মান হয় যে বাংলাদেশের পরাজয়ের অন্যতম কারণ বাজে আম্পায়ারিং! এটা ক্রিকেট ইতিহাসের বড় কলঙ্কও বটে। আইসিসির ‘কোড অব কন্ডাক্ট’ না থাকলে বাজে আম্পায়ারিং নিয়ে মাশরাফির ভাষা এমনটা হতো না। ক্ষোভ প্রকাশ করতেন খোলামেলাভাবেই।

You Might Also Like