১৩৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে দক্ষিণ আফ্রিকা

দক্ষিণ আফ্রিকার পেস ও স্পিনে বোলিংয়ের সামনে দিশেহারা অভিজ্ঞ শ্রীলঙ্কান ব্যাটিং লাইন আপ। প্রোটিয়াদের বোলিং তোপে পড়ে মাত্র ৩৭.২ ওভারে ১৩৩ রানেই গুটিয়ে গেল শ্রীলঙ্কা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন কুমার সাঙ্গাকারা। এছাড়া থিরিমান্নে ৪১ ও ম্যাথুজ ১৯ রান করেন। এছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেননি।

প্রতিরোধ গড়েও টিকতে পারেননি সাঙ্গাকারা। মরনে মরকেলের বলে ডেভিড মিলারের তালুবন্দি হন সাঙ্গাকারা। আউট হওয়ার আগে তিনি ৯৬ বলে ৪৫ রান করেন। এরপরই বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। তখন লঙ্কানদের সংগ্রহ ছিল ৩৬.২ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান। বৃষ্টির পর ফের খেলা শুরু হওয়ার এক ওভারেই সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৩৩ রান সংগ্রহ করে শ্রীলঙ্কা। তারা খেলেন ৩৭.২ ওভার। ইতিমধ্যে ১৩৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

এর আগে, বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচে টস জিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলঙ্কা। উদ্বোধন করতে আসেন কুশল পেরেরা এবং তিলকারতেœ দিলশান। আর প্রোটিয়াদের হয়ে বোলিং সূচনা করতে আসেন ডেল স্টেইন। প্রথম ওভার থেকে লঙ্কানরা তোলে তিন রান।  ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। কাইল অ্যাবোটের করা প্রথম ওভারের চতুর্থ বলে উইকেটের পিছনে দাঁড়ানো কুইন্টন ডি ককের অসাধারণ এক ক্যাচে সাজঘরে ফেরেন কুশল পেরেরা। আউট হওয়ার আগে তিনি ১০ বলে মাত্র ৩ রান করেন। ৫ ওভার শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ দুই উইকেটে রান ছিল মাত্র ৬।

গ্রুপ পর্ব থেকে শেষ আটে আসার ধারাতে মিল রয়েছে দুই দলের। পুল ‘এ’ থেকে আসা শ্রীলঙ্কার ছয় ম্যাচে চার জয়ে পয়েন্ট আট। পুল ‘বি’ থেক দক্ষিণ আফ্রিকা দলও আট পয়েন্ট নিয়ে কোয়ার্টারে পা রাখে।

মুখোমুখি লড়াইয়েও দুই দলের সমান দাপট। ওয়ানডেতে দুই দল মুখোমুখি হয়েছে ৫৯ বার। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কা জিতেছে ২৯ বার। আর দক্ষিণ আফ্রিকার জয় ২৮ বার। একটি ম্যাচ টাই ও একটি পরিত্যক্ত হয়েছে।

শ্রীলঙ্কা দল: তিলকারত্নে দিলশান, লাহিরু থিরিমান্নে, কুমার সাঙ্গাকারা, মাহেলা জয়াবর্ধনে, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ (অধিনায়ক), কুশাল পেরেরা, থিসারা পেরেরা, দুসমান্থা চামিরা, নুয়ান কুলাসেকারা, থারিন্ডু কুশল ও লাসিথ মালিঙ্গা।

দক্ষিণ আফ্রিকা দল: হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), ফাঁফ ডুপ্লেসিস, রিলে রুশো, এবি ডি ভিলিয়ার্স (অধিনায়ক), ডেভিড মিলার, জেপি ডুমিনি, কাইল অ্যাবোট, ডেল স্টেইন, মরনে মরকেল ও ইমরান তাহির।

You Might Also Like