গণতন্ত্রের আন্দোলনের কারণেই সালাহ উদ্দিন নিখোঁজ : এমাজউদ্দীন

সালাহ উদ্দিন আহমেদের নিখোঁজ হওয়ার কারণ হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর এমাজউদ্দীন আহমেদ বলেন, সালাহ উদ্দিনের একটাই অপরাধ তিনি সত্য কথা বলতেন, গণতন্ত্রের আন্দোলন করে যাচ্ছিলেন। গণতন্ত্রের আন্দোলন-সংগ্রাম করার কারণেই তিনি নিখোঁজ হয়েছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির সাবেক মহাসচিব প্রয়াত খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এমাজউদ্দীন আহমেদ হতাশা প্রকাশ করে বলেন, দেশটা আজ কোথায় যাচ্ছে? সালাহ উদ্দিন আহমেদ সাবেক একজন প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু তিনি আজ নিখোঁজ। এমন একটি স্বাধীন দেশ থেকে সাবেক প্রতিমন্ত্রীর মত মানুষ হারিয়ে যাচ্ছে। পরম সম্ভাবনাময় নাগরিক চোখে আমি হতাশা লক্ষ্য করছি।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এই ভিসি বলেন, আমি সাংবাদিকদের অনুরোধ করছি, সালাহ উদ্দিন আহমেদের ছেলে-মেয়েদের মুখের দিকে তাকিয়ে দেখুন তারা কি চায়?

প্রয়াত খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তিনি বলেন, খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনকে আমরা এমন সময় এই পৃথিবী থেকে হারিয়ে ফেলেছি যখন আমাদের এই দেশের জন্য তার অনেক কথা বলার ছিল, অনেক কাজ করার কথা ছিল।

তিনি বলেন, সীমাহীন ত্যাগ-তিথিক্ষার মাধ্যমে যে  দেশের জন্ম হল সে দেশে আজ এই অবস্থা। যারা স্বাভাবিকভাবে মৃত্যুবরণ করছেনা তাদের জন্য একবার নয় বারবার মিছিল-মিটিং করতে হবে। তা না হলে আমাদের বেঁচে থাকা অর্থহীন হয়ে পড়বে।

এসময় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাউদ্দিন আহমেদ নিখোঁজের প্রতিবাদে আলোচনা সভা চলাকালীন সময় এক মিনিট নীরবতা পালন করে প্রতিবাদ জানানো হয়।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ড. খোন্দকার আকবর  হোসেন বাবলুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বিকল্প ধারা বাংলাদেশের সভাপতি প্রফেসর একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মওলানা ভাসানী প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর খলিলুর রহমান, সাবেক সংসদ সদস্য নীলুফার ইয়াসমিন চৌধুরী মনি, শাম্মি আক্তার, এলএলবি রিফাত, আক্তারুজ্জামান, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আসাদুল করিম শাহিন, গাজী আব্দুল হক প্রমুখ।

You Might Also Like