বিশ্বকাপের শেষ আটে বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ ক্রিকেটে গ্রুপ পর্বের খেলায় বাংলাদেশের দেয়া ২৭৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৪৮ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৬০ রান সংগ্রহ করেছে ইংল্যান্ড।

এর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নির্ধারিত ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৭৫ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১০৩ রান করেন মাহমদুল্লাহ রিয়াদ ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মুশফিকুর রহিম করেন (৮৯)।

ইংল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে এন্ডারসন ও জর্ডান ২টি করে উইকেট পান।

বাংলাদেশ দলের পক্ষে তামিম ইকবাল (২), সৌম্য সরকার (৪০), সাকিব আল হাসান (২), ইমরুল কায়েস (২), মুশফিকুর রহিম (৮৯), মাশরাফি বিন মর্তুজা (৬), আরাফাত সানি (৩), সাব্বির রহমান (১৩) ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (১০৩) রান করে আউট হন। অতিরিক্ত থেকে আসে ১৪টি রান।

আজ সোমবার অ্যাডিলেডের ওভালে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক।

অবশ্য টসের পর বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা জানান, টস জিতলে ব্যাটিংই করতে চেয়েছিলেন তিনি। অ্যাডিলেড ওভালে উভয় দলের জন্যই হবে বাঁচা-মরার লড়াই। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দিতে পারলেই সরাসরি কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যাবে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। সঙ্গে সঙ্গেই প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেওয়ার মঞ্চ প্রস্তুত হয়ে যাবে ইংলিশদের।

বাংলাদেশের জন্য এ ম্যাচের পরও সুযোগ হিসেবে থাকছে নিউজিল্যান্ড ম্যাচ। তবে ইয়ন মরগানের ইংল্যান্ড দলের এ ম্যাচ জয়ের কোনো বিকল্প নেই।

২০১১ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারানোর সুখস্মৃতি রয়েছে বাংলাদেশের। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টাইগাররা ইংলিশদের দুই উইকেটে হারিয়েছিল। দুই দলের মোট দেখা হয়েছে ১৫ বার, এর মধ্যে বাংলাদেশের জয় দুই ম্যাচে। বাকি সবগুলো ম্যাচে জয় পেয়েছে ইংলিশরা। তবে, বাংলাদেশের জন্য আশার কথা, শেষ তিন বারের দেখায় টাইগারদের জয় দু’টিতে।

বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানি।

ইংল্যান্ড দল: ইয়ান বেল, মঈন আলী, অ্যালেক্স হ্যাল, জো রুট, ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), জেমস টেইলর, জস বাটলার, ক্রিস উকস, ক্রিস জর্ডান, স্টুয়ার্ট ব্রড ও জেমস অ্যান্ডারসন।

You Might Also Like