ভারতে পাচার হওয়া ২ বাংলাদেশি যুবতী ফেরত

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা চেকপোস্ট সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচার হওয়া ২ বাংলাদেশি যুবতীকে বিএসএফ-বিজিবির কাছে ফেরত দিয়েছে। এরা হলেন- আখি তারা খাতুন (১৮) ও বুলবুলী খাতুন (১৯)।

আজ রবিবার দুপুর ১টার দিকে সীমান্তের ৭৬ নম্বর মেইন পিলারের কাছে দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীদের মধ্যে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাদেরকে ফেরত দেওয়া হয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, দর্শনা বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার রবিউল আলম, চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা রাশেদ এবং ভারতের পক্ষে গেদে বিএসএফ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার ইন্সপেকটর বি যাদব ও ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা এম.ডি. রোজারিও।

দর্শনা বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার রবিউল আলম জানান, গত ২০১৪ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি বিকালে ঢাকা গুলশান থেকে ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলা শহরের কলেজপাড়ার রাজার স্ত্রী পাচারকারী নুরজাহান বেগম চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে একই এলাকার রজব আলীর মেয়ে আখিতারা খাতুন ও  কুষ্টিয়া সদর উপজেলার খোদ্ধ আইলচারা গ্রামের হাসেন আলী মন্ডলের মেয়ে বুলবুলি খাতুনকে নিয়ে বাসযোগে পরেরদিন সকালে মহেশপুর সীমান্ত শহরে আসে।

দুপুরে নুরজাহান সহ ৩ জন পাচারকারী তাদেরকে সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচার করে। এর একদিন পর ভারতের কৃষ্ণনগর থানা পুলিশ তাদেরকে আটক করলে পাচারকারীরা পালিয়ে যায়।  এরপর কৃষ্ণনগর থানা পুলিশ আদালতের নির্দেশে তাদেরকে নদীয়া জেলা সেফহোমে রাখে।

দীর্ঘ এক বছর সেফহোমে থাকার পর আজ রবিবার দুপুরে তাদেরকে বিএসএফ-বিজিবির কাছে ফেরত দেয়। পুলিশ দুপুরে তাদেরকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে।

You Might Also Like