সেই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ছাত্রী হয়রানির অভিযোগ

অবশেষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ‘হয়রানির’ অভিযোগ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় বাংলা বিভাগের ৩৯তম ব্যাচের এক ছাত্রী। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম ও প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা ববাবর এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেন ওই ছাত্রী।

অভিযোগে বলা হয়, শুক্রবার বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নিতে পরিবহন চত্বরে এলে শাখা ছাত্রলীগের নির্বাহী সদস্য ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের ৪১তম ব্যাচের ছাত্র হামজা রহমান অন্তর কিছু না বলেই তার গায়ে দুই বোতল রং ছুড়ে মারে। একাধিকবার না করার পরও সে ইচ্ছাকৃতভাবে তার পুরো শরীরে দুই বোতল রং মাখিয়ে দেয়। এ কারণে সে সময়মতো বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি। এ ঘটনার বিচার চেয়ে উপাচার্য ও প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

অভিযোগকারী ছাত্রী বলেন, ওই ছাত্র এর আগেও আমাকে ফেসবুকে ডিস্ট্রাব করতো। তাকে রং দিতে বারবার নিষেধ করলেও সে মুখের উপর রং ঢেলে দেয়। এ সময় আমি কান্নায় ভেঙে পড়ি। পরে তৎক্ষণিক কয়েকজন শিক্ষককে বিষয়টি জানাই।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা হামজা রহমান অন্তর জানান, হয়রানির অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমি তার গায়ে রং দেয়ার পর সঙ্গে সঙ্গে দুঃখ প্রকাশ করেছি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক ড. তপন কুমার সাহা বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

You Might Also Like