নাগাল্যান্ডে জেল থেকে ধর্ষণের আসামিকে ছিনিয়ে এনে ফাঁসি দিল ক্ষুব্ধ জনতা

দিল্লীতে তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে কেন্দ্র করে তথ্যচিত্র নিয়ে যখন বিবাদ চলছে, তখন নাগাল্যান্ডে ধর্ষণে অভিযুক্ত এক অপরাধীকে জেল থেকে বের করে এনে পিটিয়ে হত্যা করল উত্তেজিত জনতা। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনায় ওই ব্যক্তির লাশকে শহরের চৌরাস্তায় ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেয়া হয়। এই ঘটনায় কয়েকজন জেল বন্দিও পালিয়ে গেছে। নাগাল্যান্ড পুলিশের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত ফোর্স চাওয়া হয়েছে এবং সেনাবাহিনীকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

 

এক সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘জেলখানায় স্থানীয় পুলিশ এবং কারারক্ষীরা  পাহারা দিচ্ছিলেন কিন্তু তারপরও ঐ অভিযুক্তকে বাঁচানো সম্ভব হয় নি।’

 

বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রায় ৬০০ উত্তেজিত মানুষ ডিমাপুর সেন্ট্রাল জেলে হামলা চালায়। সেখানে জেলখানার লোহার দরজা ভেঙে ওই অপরাধীকে টেনে বের করে আনে বেদম মারধর করে জনতা। এরফলে মৃত্যু হয় ওই অপরাধীর।

 

ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এক উপজাতীয় নাগা মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটলে সেই সময় স্থানীয় মানুষজন প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এনিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শনসহ বেশ কয়েকটি যানবাহনেও আগুন লাগায় ক্ষুব্ধ জনতা। পুলিশ অভিযুক্ত অসমের ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে এবং পরে তাকে জেল হেফাজতে রাখা হয়।

 

নৃশংস এই হত্যার ঘটনার প্রতিক্রিয়া পার্শ্ববর্তী এলাকা বিশেষ করে অসমে পড়ার আশংকায় সেখানেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

You Might Also Like